শুভেন্দুর দলত্যাগের এক মাসে মাথায় পূর্ব মেদিনীপুরে মমতা, ১৮ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে কী ঘোষণা তৃণমূল নেত্রীর?

আগে ঠিক ছিল ৭ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে সভা করবেন মমতা ব্যানার্জি

আগামী ১৮ জানুয়ারি নন্দীগ্রামের তেখালিতে সভা করবেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। সূত্রের খবর, নন্দীগ্রাম ও খেজুরির মাঝখানে তেখালি ব্রিজে দাঁড়িয়ে ওইদিন মমতার নিশানায় থাকবে অধিকারী পরিবার। সেখান থেকে কী বার্তা দেবেন তিনি?

২০১৬ সালে বিধানসভা ভোটের প্রায় চার মাস আগে নন্দীগ্রামে দাঁড়িয়েই তৃণমূলের প্রথম প্রার্থী হিসেবে শুভেন্দু অধিকারীর নাম ঘোষণা করে দিয়েছিলেন মমতা ব্যানার্জি। সেই নন্দীগ্রাম বিধানসভা থেকে ভোটে জিতে মন্ত্রী হওয়া শুভেন্দু এখন বিজেপিতে। এই প্রেক্ষিতে দাঁড়িয়ে আগামী ১৮ জানুয়ারি নন্দীগ্রামের তেখালির সভায় মমতা নিশানা করবেন অধিকারী পরিবারকেই।

নন্দীগ্রাম জমি আন্দোলনে ভর করে ২০০৮ সালের পঞ্চায়েত ভোটে এই জেলায় নিরঙ্কুশ প্রাধান্য প্রতিষ্ঠা করে তৃণমূল। ২০১১ সালে বাংলায় রাজনৈতিক পালাবাদলের পিছনেও জমি আন্দোলনের বিশেষ ভূমিকা ছিল। ২০০৯ লোকসভা ভোটে তমলুক কেন্দ্র থেকে বিপুল ভোটে জয়লাভ করা শুভেন্দুকে ২০১৬ সালের বিধানসভা ভোটের প্রার্থী করেন মমতা। নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়ে রাজ্যের মন্ত্রী হন তিনি। ‘১৬ সালে এই জেলার ১৬টি বিধানসভা আসনের ১৩টিতেই জয়ী হয় তৃণমূল। পরে একজন বিধায়কের মৃত্যু, সম্প্রতি নন্দীগ্রামের বিধায়ক পদ থেকে শুভেন্দুর পদত্যাগ ও তাঁর হাত ধরে কাঁথি উত্তরের বিধায়ক বনশ্রী মাইতি বিজেপিতে চলে যাওয়ার প্রেক্ষিতে আর কতজন বিধায়ক শুভেন্দুর সঙ্গে যোগযোগ রাখছেন সেদিকে নজর থাকছে তৃণমূল নেত্রীর। সেই হিসেবে কষেই এবার কারা কারা ভোটের টিকিট পাবেন ওইদিন তার একটা গাইডলাইন দিতে পারেন তৃণমূল নেত্রী। ভোটের মুখে তেখালিতে দাঁড়িয়ে পূর্ব মেদিনীপুরের তৃণমূল নেতৃত্বকে বেশ কিছু নির্দেশ দেবেন নেত্রী। সেই সঙ্গে শুভেন্দুর বিজেপিতে যাওয়ার পর কার্যত নিষ্ক্রিয় হয়ে যাওয়া অধিকারী পরিবারকে কী বার্তা দেন তিনি, সেদিকেও নজর থাকবে সকলের। ইতিমধ্যেই পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা সভাপতির পদ থেকে শিশির অধিকারীকে সরিয়ে বসানো হয়েছে সৌমেন মহাপাত্রকে।

আগে ঠিক ছিল ৭ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে সভা করবেন মমতা ব্যানার্জি। কিন্তু রামনগরের তৃণমূল বিধায়ক তথা জেলার গুরুত্বপূর্ণ নেতা অখিল গিরি করোনা সংক্রমিত হওয়ায় সেই সভা মুলতুবি করে দেয় তৃণমূল। গত ১৯ ডিসেম্বর পশ্চিম মেদিনীপুরের সভায় অমিত শাহের হাত ধরে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি শিবিরে যোগ দেন শুভেন্দু। আর তার একমাসের মাথায় নন্দীগ্রামে সভা করতে যাচ্ছেন মমতা ব্যানার্জি।

Comments
Loading...