মমতা: আগেরবার ভোট পাইনি, নিশ্চয়ই কোথাও ভুল হয়েছিল, শুধরে নিয়েছি, হুগলির সব আসন চাই

আগেরবার ভোট পাইনি। যা যা ভুল ছিল শুধরে নিয়েছি। মা-বোনেরা, আগে যা হয়েছে সব ভুলে যান। এবার হুগলির সব আসন চাই। সাহাগঞ্জের ডানলপ ময়দানের সভা থেকে আবেদন মমতা ব্যানার্জির।

দু’দিন আগে একই জায়গা থেকে জনসভা করে তৃণমূলকে বিঁধেছিলেন নরেন্দ্র মোদী। এদিনের সভা থেকে মোদীর আক্রমণের রাজনৈতিক জবাব দিলেন মমতা। লোকসভা ভোটে হুগলি জেলায় ভালো ফল করতে পারেনি তৃণমূল। এই জয়কে হাতিয়ার করতে চাইছে বিজেপি।
এদিন তৃণমূল নেত্রীর মুখে উঠে আসে খেলা হবে স্লোগান। তিনি বলেছেন, একুশের নির্বাচনে একটাই খেলা হবে। একদিকে থাকবে তৃণমূল কংগ্রেস। অন্যদিকে বিজেপি, কংগ্রেস, সিপিএম সহ বিরোধীরা। আমি থাকব গোলরক্ষক, একটাও গোল করতে দেব না। সব বল পোস্টের উপর দিয়ে যাবে।

[আরও পড়ুন- LIVE: এক লাইন বাংলা বলে বাংলার মন জেতা যায় না, মোদীকে জবাব মমতার]

ডানলপ ময়দানে সভা করলেও বন্ধ কারখানা খোলার ব্যাপারে কোনও কথা বলেননি মোদী। এদিন সেই ইস্যুতে বিজেপির দিকে তীব্র আক্রমণ শানান মমতা। বলেন, আমি ডানলপের দায়িত্ব নিতে চেয়েছিলাম কিন্তু দেওয়া হয়নি। তারপরই ডানলপ কর্ণধার পবন রুইয়াকে কটাক্ষ করে মমতা বলেন, বিজেপি নেতারা রুইয়ার বাড়িতে অতিথির মর্যাদা পায়। তাই শ্রমিকদের মুখের গ্রাস কেড়ে নিলেও নরেন্দ্র মোদী একটা কথাও বলতে পারেন না।

প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করেছিলেন, বাংলায় মমতার আমলে মেয়েদের নিরাপত্তা নেই। এদিন সেই দাবিকেও রীতিমতো প্রশ্নের মুখে ফেললেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর প্রশ্ন, বিজেপি শাসিত গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশে মহিলারা সুরক্ষিত? বিজেপি পার্টির মধ্যে মহিলাদের সম্মান নেই। অনেকেই তা জানেন কিন্তু বলতে ভয় পান, বলেন মমতা ব্যানার্জি।

মোদীর হাতে দক্ষিণেশ্বর মেট্রোর উদ্বোধন নিয়েও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি মমতা। বলেন, এখন ফিতে কাটছ, আমি রেলমন্ত্রী থাকাকালীন প্রকল্প শুরু করেছিলাম। একটা দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে কীভাবে এত মিথ্যে বলেন!

তারপরই খেলা হবে স্লোগান নিয়ে মমতা বলেন, খেলা হবে। এস, খেলে দেখ কেমন লাগে। কতজনকে গ্রেফতার করবে? জেল ফেটে বেরিয়ে আসবে, বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ মমতার।

Comments
Loading...