করোনা জয়ঃ দ্বিতীয়বার বিয়ে করলেন নবদ্বীপের পঞ্চাশোর্ধ্ব দম্পতি

এতো গল্প নয়, সত্যি ঘটনা। নতুন করে আবার বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হলেন নবদ্বীপের পঞ্চাশোর্ধ্ব এক ব্যক্তি। নার্সিংহোমের ডাক্তার, স্বাস্থ্যকর্মীদের সামনেই অসুস্থ স্ত্রীর গলায় পরিয়ে দিলেন মালা। আজ এমনই এক অন্যরকম বিয়ের সাক্ষী হয়ে রইল চুঁচুড়ার একটি বেসরকারি নার্সিংহোম। প্রসঙ্গত, নবদ্বীপের শ্যামল রায়ের স্ত্রী রুমা রায় গত ২৮ নভেম্বর করোনায় আক্রান্ত হন। করোনার থাবা থেকে বাচেন নি খোদ শ্যামল বাবুও।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার দিন কয়েক পরেই রুমা দেবীর অবস্থা ক্রমেই খারাপ হতে শুরু করে। স্ত্রীর অবস্থা ক্রমেই খারাপ হওয়ায় শ্যামল বাবু হুগলির চুঁচুড়ার এক বেসরকারি নার্সিংহোমে তাকে ভর্তি করেন। কিন্তু ততোক্ষনে রুমা দেবীর অক্সিজেনের মাত্রা ৫৪ শতাংশ হয়ে গিয়েছে। চিকিৎসকরা তেমন কোনও আশ্বাস দিতে পারেননি। আর সেই খারাপ সময়ের মাঝে কেবল ভগবান আর ডাক্তারদের ওপরই আস্থা ছিল শ্যামল বাবুর।

দেখতে দেখতে বেশ কিছু দিন পরেই চিকিৎসায় সারা দেন রুমা দেবীও। আর সুস্থ হতে না হতেই যেন প্রাণে জল পেলেন শ্যামল বাবু। আর বাড়ি ফিরে যাওয়ার আগেই নিজেদের নতুন জীবনের শুরুটা আরো একবার সবাই মনে করাতেই বিয়ে করলেন এই দম্পতি। ইতিমধ্যেই শ্যামল বাবু হাসপাতালের ডাক্তারদের কাছে ধন্যবাদ জানিয়েছেন, তিনি এও বলেও অনাদের অক্লান্ত পরিশ্রম আর ভগবানের দয়াতেই তারা আবার নতুন জীবন ফিরে পেলেন।

Comments
Loading...