বিধ্বস্ত আম জনতা, মোদীর আমল তাদের কাছে মানসিক আঘাতের মতো, নরেন্দ্র মোদীকে তীব্র আক্রমণে মনমোহন সিংহ

‘গত ৫ বছর নরেন্দ্র মোদী শাসন ছিল দেশের যুবক, কৃষক, ব্যবসায়ী তথা সাধারণ মানুষের কাছে মানসিক আঘাতের মতো, তাঁরা প্রত্যেকে বিধ্বস্ত’। পঞ্চম দফা ভোটের ঠিক আগেরদিন, এভাবেই মোদী-আমলকে বর্ণনা করলেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ।
রবিবার সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই লোকসভা ভোটেই মোদীকে ক্ষমতাচ্যুত করতে হবে। গত পাঁচ বছরে দেশবাসী প্রত্যক্ষ করেছেন, দুর্নীতি অকল্পনীয় হারে বেড়েছে। ওই সাক্ষাৎকারে মোদী জমানার একাধিক প্রকল্প ও সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেন মনমোহন সিংহ। বিখ্যাত অর্থনীতিবিদ তথা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর কথায়, স্বাধীন ভারতে সবচেয়ে বড় কেলেঙ্কারি হিসেবে চিহ্নিত হতে চলেছে নরেন্দ্র মোদীর আমলে করা নোটবন্দি। মোদীর পাকিস্তান নীতিকে ‘বিশৃঙ্খল’ বলেও কটাক্ষ করেন মনমোহন সিংহ। বিস্মিত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্ন, পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় যখন ৪০ জন জওয়ানের নিহত হওয়ার খবর আসছে, তখন ক্যাবিনেট কমিটির মিটিং না করে দেশের প্রধানমন্ত্রী জিম করবেট ন্যাশনাল পার্কে তথ্যচিত্রের শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকেন কী করে! তাঁর কটাক্ষ, একশোবার ধরে কোনও মিথ্যে উচ্চারণ করলেও তা মিথ্যেই থাকে, সত্যি হয়ে যায় না। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যখন দাবি করছেন তাঁর সরকারের আমলে সন্ত্রাসবাদীদের যোগ্য জবাব দেওয়া হয়েছে, তখন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর দাবি, শুধু জম্মু-কাশ্মীরে গত পাঁচ বছরে সন্ত্রাসবাদী হামলা বেড়েছে ১৭৬ শতাংশ। তাছাড়া ভারত-পাক সীমান্তে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন হয়েছে ১ হাজার শতাংশ, দাবি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর। ‘বিভাজন’ ও ‘ঘৃণা’ শব্দ দুটি বিজেপির সঙ্গে সমার্থক, বলেও আক্রমণ করেন মনমোহন সিংহ।
মনমোহন সিংহের মন্তব্যের পরই পাল্টা কটাক্ষ ছুঁড়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। তাঁর ট্যুইট, কোনও অর্থনীতিবিদ যখন রাজনীতিবিদ হন, তখন অর্থনীতি আর রাজনীতি দুই বিষয়েই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

Comments
Loading...