চিনে করোনাভাইরাস মহামারির আকার নেওয়ায় ভারতে ৪০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তে পারে প্যারাসিটামলের দাম, কমছে মোবাইল ফোন উৎপাদন। মারণ ভাইরাস ছড়ানোর আশঙ্কায় চিন পণ্য আমদানি ও রফতানি বন্ধ রেখেছে। যার জেরে ভারতের বাজারে ইতিমধ্যেই অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। ব্যথা ও বেদনা কমানোর জন্য বহুল ব্যবহৃত প্যারাসিটামল থেকে অ্যাজিথ্রোমাইসিনের মতো অ্যান্টিবায়োটিকের দাম যথাক্রমে ৪০ ও ৭০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছে দেশের ওষুধ সংস্থাগুলি। ওষুধ তৈরির বিভিন্ন উপাদান চিন থেকে আমদানি করে থাকে ভারত। কিন্তু করোনাভাইরাসের জেরে আমদানি বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে সমস্যা দেখা দিয়েছে।

ওষুধ নির্মাণ সংস্থাগুলি জানাচ্ছে, আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে নির্দিষ্ট কিছু ওষুধের উপাদান সরবরাহের সমস্যা না মিটলে ওষুধ প্রস্তুতের ক্ষেত্রে বড় বাধা তৈরি হবে। সেই সঙ্গে প্যারাসিটামলের মতো বেশ কিছু ওষুধের দাম বেড়ে যেতে পারে।
এ পর্যন্ত চিনে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দেড় হাজার ছাড়িয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে। এই অবস্থায় চিন পণ্য আমদানি ও রফতানিতে ছেদ টানায় সমস্যায় ভারতের মতো বহু দেশ। ওষুধের উপাদান, বিভিন্ন কাঁচামাল, মোবাইল ফোনের সরঞ্জাম ইত্যাদির ক্ষেত্রে চিনের উপর বিশেষ নির্ভরশীল ভারত। দেশের বেশ কিছু ইলেকট্রনিক্স সংস্থার মোবাইল ফোন উৎপাদনে ভাটা পড়েছে। অবস্থার পরিবর্তন না হলে বেশ কয়েকটি ব্র্যান্ড মোবাইল তৈরি আংশিক বন্ধ করে দিতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ইন্ডিয়ান সেলুলার অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান পঙ্কজ মাহিন্দ্র।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

PM Address To Nation
I PAC Initiative