এয়ারটেলে ১ বছরের প্ল্যান ১,৬৯৯ থেকে বেড়ে ২,৩৯৮, ভোডাফোনে ২,৩৯৯ টাকা, জিওতেও বাড়ছে খরচ

একযোগে ভোডাফোন, এয়ারটেল ও রিলায়েন্স জিও-র মোবাইল পরিষেবার খরচ বাড়ছে। ভোডাফোন এবং এয়ারটেলের নয়া মাশুল ৩ ডিসেম্বর থেকে, আর রিলায়েন্স জিও-র নয়া মাশুল ৬ ডিসেম্বর থেকে চালু হবে।
রবিবার ভোডাফোন-আইডিয়ার তরফে জানানো হয়েছে, তাদের প্রিপেড গ্রাহকদের ৪২ শতাংশ পর্যন্ত খরচ বাড়ছে। ভোডাফোন-আইডিয়া থেকে অন্য কোনও টেলি পরিষেবা সংস্থার নম্বরে আউটগোয়িং কলের ক্ষেত্রে মিনিট পিছু ছ’পয়সা দিতে হচ্ছে গ্রাহকদের। আনলিমিটেড প্ল্যানের ক্ষেত্রেও কিছু নিয়মে বদল আনা হয়েছে। ভোডাফোনের ৮৪ দিন এবং ৩৬৫ দিনের প্যাকে সর্বোচ্চ ৪১.২ শতাংশ খরচ বাড়ানোর কথা ঘোষিত হয়েছে। অর্থাৎ, ৩৬৫ দিনের প্ল্যানটিতে খরচ হত ১ হাজার ৬৯৯ টাকা, তা ৩ ডিসেম্বরের পর থেকে দাঁড়াবে ২ হাজার ৩৯৯ টাকায়। একইভাবে, ৮৪ দিনের যে দেড় জিবি ডেটা প্ল্যানের বর্তমান খরচ ৪৫৮ টাকা, তা বেড়ে হচ্ছে ৫৯৯ টাকা।
অন্যদিকে, ভারতি এয়ারটেলের ঘোষণা, দিনপিছু তাদের গ্রাহকের খরচ ৫০ পয়সা থেকে ২.৮৫ টাকা পর্যন্ত বাড়তে চলেছে। ভোডাফোন আইডিয়া বা এয়ারটেল, দুই ক্ষেত্রের গ্রাহককে অন্তত ৪৯ টাকা খরচ করে মোবাইল সংযোগ চালু রাখতে হবে। এয়ারটেল জানিয়েছে, ৮৪ দিনের জন্য তিন হাজার মিনিট এবং সারা বছরের জন্য ১২ হাজার মিনিটের একটি সীমারেখা টানা হয়েছে। এর বাইরে গেলে মিনিট পিছু ছ’পয়সার খরচ মেটাতে হবে গ্রাহককে। এয়ারটেলের ক্ষেত্রে ১ হাজার ৬৯৯ টাকার প্ল্যান বেড়ে ২ হাজার ৩৯৮ টাকা হচ্ছে। ৪৫৮ টাকার প্ল্যানের খরচ দাঁড়াবে ৫৯৮ টাকা। ১৯৯ টাকার প্ল্যান বেড়ে হচ্ছে ২৪৮ টাকা।
রিলায়েন্স জিও জানিয়েছে, ৪০ শতাংশ পর্যন্ত পরিষেবা খরচ বাড়বে। তাদের নতুন প্ল্যান চালু হচ্ছে ৬ ডিসেম্বর থেকে। তবে তারা এমন একটি প্ল্যান আনতে চলেছে, যেখানে গ্রাহক আনলিমিটেড ভয়েস ও ডেটা পাবেন। পাশাপাশি তাতে এমন নীতি কার্যকর হবে, যেখানে অন্য কোনও নেটওয়ার্কে ফোন করলে গ্রাহক আর্থিক সমস্যায় পড়বেন না। নতুন প্ল্যানে গ্রাহকরা ৩০০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তি সুবিধা পাবেন বলে দাবি করেছে জিও।

 

Comments
Loading...