বারাণসীতেও মোদীর মুখে বাংলার ভোট-হিংসা, বললেন রাজনৈতিক অস্পৃশ্যতা ও হিংসার শিকার বিজেপি

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথের আগে বারাণসীতে নরেন্দ্র মোদী। পুজো দিলেন বিশ্বনাথ মন্দিরে। তারপর বিশাল সমাবেশে ধন্যবাদ জানালেন বারাণসীর বাসিন্দাদের। পাশাপাশি এদিনও তুলে আনলেন ভোটের সময় বাংলায় হিংসার প্রসঙ্গ। বললেন, কয়েকটি রাজ্যে স্রেফ রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গির কারণে আমাদের শতাধিক কর্মী নিহত হয়েছেন। রাজনৈতিক অস্পৃশ্যতা ক্রমেই ডানা মেলছে। নরেন্দ্র মোদীর কথায়, কিছু কিছু জায়গায় আমি বিজেপি করি, একথা বললেই অস্পৃশ্যতার সম্মুখীন হতে হয় আমাদের কর্মীদের। তাঁর প্রশ্ন, কেরল, কাশ্মীর কিংবা বাংলায় আমাদের কর্মীদের কেন মৃত্যু হচ্ছে? একে অত্যন্ত লজ্জাজনক এবং অগণতান্ত্রিক বলে উল্লেখ করেন মোদী।

পাশাপাশি বিজেপির বিপুল জয় নিয়ে বলতে গিয়ে মোদীর মন্তব্য, মানুষের সঙ্গে বিজেপির রসায়নের কাছে হার মেনেছে ভোটের পাটিগণিত। তিনি বলেন, ষষ্ঠ দফা ভোটের শেষেই বুঝেছিলাম ৩০০ পার করবে বিজেপি। তাঁর কটাক্ষ, বিশেষজ্ঞদের এবার স্বীকার করে নেওয়া উচিত, ভোটের পাটিগণিতের উপর থাকে মানুষের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট রাজনৈতিক দলটির সম্পর্কের রসায়ন। যে রসায়নের কাছে এবার হার মেনেছে ভোটের পাটিগণিত, মন্তব্য নরেন্দ্র মোদীর।

বিরোধীদের খোঁচা দিয়ে মোদী বলেন, কেরল থেকে কাশ্মীর, পশ্চিমবঙ্গ থেকে উত্তর-পূর্ব ভারতে বিপুল জনসমর্থন পাওয়ার পরেও অনেক রাজনৈতিক ‘পণ্ডিত’ বিজেপিকে হিন্দি বলয়ের দল হিসেবে চিহ্নিত করেন।

বারাণসী কেন্দ্র থেকে গতবারের চেয়েও ব্যবধান বাড়িয়েছেন মোদী। এবার সমাজবাদী পার্টির শালিনী যাদবকে ৪ লক্ষ ৭৯ হাজার ভোটে হারিয়েছেন। এই প্রেক্ষিতে বারাণসীর মানুষকে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে নরেন্দ্র মোদী বলেন, ষষ্ঠ দফার ভোট পরই তিনি বুঝেছিলেন, এবার ৩০০ পার করবে বিজেপি, কিন্তু অনেকেই সেসময় বিদ্রুপ করেছিলেন তাঁকে। এখন হাতেনাতে ফল পেয়েছেন তাঁরা, মন্তব্য নরেন্দ্র মোদীর।

Comments
Loading...