লোকসভা ভোটে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে সরকার গড়ার পর ৩ রাজ্যের ২ টিতে ধাক্কা খেল বিজেপি (Modi Shah Plan)। হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র এবং সর্বশেষ ঝাড়খণ্ডের বিধানসভা ভোটে মোট ৪৫৯ টি আসনের মধ্যে বিজেপি পেয়েছে ১৭১ টি আসন। সেখানে বিরোধীরা পেয়েছে ২৩২ টি আসন।
অন্যদিকে, বাংলায় ৩ আসনে উপনির্বাচনেও ভরাডুবি হয়েছে বিজেপির। লোকসভার হিসেবে ৩ টির মধ্যে ২ টি আসনে (কালিয়াগঞ্জ ও খড়গপুর) যেখানে তৃণমূলের চেয়ে বিজেপির লিড ছিল গড়ে প্রায় ৫০ হাজার। সেখানে তৃণমূল প্রার্থীরা জিতেছেন হাসতে হাসতে। দূর্গ রক্ষা হয়নি বাংলায় বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের ছেড়ে যাওয়া খড়গপুর সদর বিধানসভা আসনেও।
সব মিলিয়ে লোকসভা ভোটের পর ৩ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন এবং কিছু উপনির্বাচনের ফল চিন্তার ভাঁজ (Modi Shah Plan) ফেলেছে গেরুয়া শিবিরে। কারণ, নাগরিকত্ব আইন নিয়ে দেশজোড়া বিক্ষোভের পরিস্থিতিতে  বিভিন্ন রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে আশানুরূপ ফল হয়নি বিজেপির। এই পরিস্থিতিতে ২০২০ সালে বিজেপির বড় পরীক্ষা দিল্লিতে। সেখানে কেজরিওয়ালের আপের সঙ্গে এবার মোদী-শাহের প্রেস্টিজ ফাইট। গতবার দিল্লিতে আপের কাছে শোচনীয় হারের বদলা নিতে পারবেন কি মোদী-অমিত শাহ? এখন এটাই সবচেয়ে বড় প্রশ্ন জাতীয় রাজনীতিতে। দিল্লির পরই ভোটের দামামা বেজে যাবে বিহারে। তারপরই শুরু হয়ে যাবে বাংলা ও কেরলে ভোটের প্রস্তুতি। এই দুই রাজ্যকেই বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন বিজেপি নেতৃত্ব।
এবার আসুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক, লোকসভা ভোটের ৬ মাসের মধ্যে হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র এবং ঝাড়খণ্ড ভোটে সামগ্রিকভাবে কেমন পারফর্মেন্স বিজেপির।
মহারাষ্ট্রে বিজেপি একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রিত্ব নিয়ে শিবসেনার সঙ্গে টানাপোড়েনের জেরে বিরোধী আসনে বসতে হয়েছে ফড়নবিসদের। কংগ্রেস ও এনসিপির সমর্থন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন শিবসেনা নেতা উদ্ধব ঠাকরে।
মহারাষ্ট্রের মোট ২৮৮ টি আসনের মধ্যে বিজেপি একা পেয়েছিল ১০৬ টি, যা মোট আসনের ৩৬ শতাংশ। অন্যদিকে শিবসেনা, এনসিপি এবং কংগ্রেস পেয়েছে ১৫৫ টি আসন, যা মোট আসনের ৫৪ শতাংশ।
হরিয়ানায় মোট আসন ৯০ টি। তার মধ্যে বিজেপি একা জিতেছে ৪০ টি, বা ৪৪ শতাংশ আসন। বিরোধী কংগ্রেসের দখলে আসে ৩০ টি, অর্থাৎ ৩৩ শতাংশ আসন। এক্ক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেলেও জেজেপির সমর্থন নিয়ে হরিয়ানাতে আবার সরকার গড়েছেন বিজেপির মনোহরলাল খট্টার।
ঝাড়খণ্ডে মোট আসন ৮১ টি। সেখানে বিজেপি একা লড়ে দখল করেছে ২৫ টি আসন, যা মোট আসনের ৩০ শতাংশ। অন্যদিকে কংগ্রেস, জেএমএম, আরজেডির মহাগটবন্ধন পায় ৪৭ টি বা ৫৮ শতাংশ আসন। ঝাড়খণ্ডের লোকসভা ভোটের ফলের বিধানসভাওয়াড়ি বিশ্লেষণ করলে দেখা যাচ্ছে, বিজেপি এগিয়েছিল ৫৭ টি আসনে।
সব মিলিয়ে হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র ও ঝাড়খণ্ডে বিধানসভা নির্বাচনে মোট ৪৫৯ টি আসনের মধ্যে বিজেপি পেয়েছে ১৭১ টি। অর্থাৎ, সাফল্যের হার ৩৭ শতাংশ। সেখানে বিরোধীরা পেয়েছে ২৩২ টি বা প্রায় ৫১ শতাংশ আসন।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Subscribe

You may also like