বিমানের টিকিট বাতিলে আর ইচ্ছামত জরিমানা নিতে পারবে না বিমান সংস্থাগুলি, প্রস্তাব মন্ত্রকের

এবার থেকে বিমান ছাড়ার ২৪ ঘণ্টা আগে যদি কোনও যাত্রী তাঁর টিকিট বাতিল করেন তাহলে আর ‘ক্যান্সেলেশন চার্জ’ নিতে পারবে না বিমান পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলি। মঙ্গলবার এই মর্মে প্রস্তাব এনেছে অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রক। প্রস্তাবে আরও বলা হয়েছে বিমান ছাড়ার ৯৬ ঘণ্টা আগে থেকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে টিকিট বাতিল করলে আর জরিমানা করা যাবে না। প্রস্তাবে আরও বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টা পর কেউ টিকিট বাতিল করলেও তার জরিমানার পরিমাণ যেন টিকিটের বেস প্রাইজের থেকে বেশি না হয়। এতদিন বিমান পরিবহণ সংস্থাগুলি বেস প্রাইজের থেকে বেশি জরিমানা ধার্য করত।

অসামরিক বিমাণ পরিবহণমন্ত্রী জয়ন্ত সিনহা আরও জানিয়েছেন, প্রস্তাবে বলা হয়েছে বিমান বাতিল হলে টাকা ফেরতের অথবা বিকল্প বিমানের ব্যবস্থা করতে হবে বিমান সংস্থাগুলিকে। কোনও বিমান নির্ধারিত সময়ের থেকে চার ঘণ্টা বা তার থেকেও বেশি দেরিতে এলে তার বিকল্প ব্যবস্থা অথবা যাত্রীকে টাকা ফেরতের ব্যবস্থা করতে হবে সংশ্লিষ্ট বিমান পরিবহণ সংস্থাটি’কে। চার থেকে ১২ ঘণ্টা দেরি হলে ১০ হাজার টাকা এবং ১২ ঘণ্টারও বেশি দেরি হলে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত টাকা ফেরৎ দিতে হতে পারে বিমান সংস্থাটি’কে। টিকিট বুকিং এবং টিকিট বাতিলের সুবিধার্থে ‘এয়ার সেবা’ নামের একটি অ্যাপ আনার কথাও ঘোষণা করা হয়েছে মন্ত্রকের তরফে। আগামী এক মাসের মধ্যে চূড়ান্ত হতে পারে এই প্রস্তাবগুলি।

Comments
Loading...