দেশের সেরা ১০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে যাদবপুর ও কলকাতা, ১৩ ধাপ নেমে ৫০ নম্বরে বিশ্বভারতী

কেন্দ্রের প্রকাশিত তালিকায় রাজ্যের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তকমা পেল যাদবপুর। আর দেশের প্রথম ১০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে জায়গা করে নিল যাদবপুর ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। আর কলেজগুলির মধ্যে সর্বভারতীয় র‍্যাংকিংয়ে প্রথম ১০ এ রয়েছে কলকাতার সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ এবং হাওড়ার রামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যামন্দির। যদিও সামগ্রিক বিচারে দেশের প্রথম ১০ উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকায় বাংলা থেকে একমাত্র ঠাঁই পেয়েছে আইআইটি, খড়গপুর। সামগ্রিক র‍্যাংকিংয়ে খড়গপুর আইআইটি আছে পাঁচ নম্বরে। তবে আইআইটি-র ভিড়ে নজরকাড়া পারফরম্যান্স যাদবপুর ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের।
গত এপ্রিল মাসে কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের তরফে দেশের উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলির NIRF র‍্যাঙ্কিং প্রকাশের কথা থাকলেও, করোনা সংকটের জেরে তা স্থগিত হয়ে যায়। অবশেষে বৃহস্পতিবার NIRF র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করেন কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী রমেশ পোখরিওয়াল। তাতে দেখা যাচ্ছে, ভারতের সেরা কলেজেগুলির তালিকায় প্রথম ১০ এর মধ্যে ৫ টিই দিল্লির। এ বছরও সেরা কলেজের শিরোপা ধরে রেখেছে দিল্লির মিরান্ডা হাউজ। দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থানে যথাক্রমে লেডি শ্রীরাম কলেজ ফর ওম্য়ান এবং হিন্দু কলেজ। তিনটিই দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্গত। এদিকে, তালিকায় যুগ্মভাবে সাত নম্বরে আছে কলকাতার সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ এবং হাওড়ার রামকৃষ্ণ মিশন বিদ্যামন্দির। আর রহড়ার রামকৃষ্ণ মিশন বিবেকানন্দ কলেজের স্থান কয়েক ধাপ পিছিয়ে এবার হয়েছে একাদশ।
দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মধ্যে প্রথম ১০ এ আছে যাদবপুর ও কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। এর মধ্যে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থান পঞ্চম। আর কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে আছে তার দু’ধাপ নীচে, সাত নম্বরে। একইভাবে বিশ্বভারতী এবং বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয় গতবারের তুলনায় র‌্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়ে গিয়েছে। গতবার যেখানে বিশ্বভারতী ৩৭ নম্বরে ছিল, এবার তারা ৫০ নম্বরে রয়েছে। বর্ধমান তিন ধাপ পিছিয়ে ৯২ তম স্থানে ঠাঁই পেয়েছে। তবে সামান্য উঠেছে কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়। গতবার তারা ৯১ নম্বরে ছিল। এবার কল্যাণী দু’ধাপ এগিয়ে ৮৯ তম স্থানে উঠে এসেছে। তবে গত দু’বছরের মতো এবারও প্রথম ১০০-তে নেই প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়। এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাঙ্কিংয়ে যাদবপুর এগিয়ে থাকলেও সার্বিকভাবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় বাজিমাত রয়েছে। এগারোতম স্থানে ঠাঁই পেয়েছে কলকাতা। তারপরেই রয়েছে যাদবপুর। গতবার ত্রয়োদশ স্থানে ছিল যাদবপুর এবং কলকাতার স্থান হয়েছিল দ্বাদশ স্থানে। এছাড়া বিশ্বভারতী রয়েছে ৬৯ তম স্থানে।

দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তকমা পেয়েছে বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স (IISc)। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় (JNU) এবং বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় (BHU)।

Comments
Loading...