সিএএতে আপাতত স্থগিতাদেশ নয়, কেন্দ্রের কাছে ৪ সপ্তাহে জবাব তলব, স্থগিত হাইকোর্টে এই সংক্রান্ত মামলার শুনানি

নয়া নাগরিকত্ব আইনে আপাতত এক তরফা স্থগিতাদেশ দিল না সুপ্রিম কোর্ট। এদিন শুনানি চলাকালীন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ৩ বিচারপতির বেঞ্চ বলে, এভাবে এক তরফা স্থগিতাদেশ দেওয়া যায় না, সাংবিধানিক বেঞ্চই একমাত্র এই নির্দেশ দিতে পারে। ৯৯ শতাংশ আবেদনকারীর কথা শোনার পরই এবিষয়ে রায় দেওয়া সম্ভব। সবকটি আর্জির প্রেক্ষিতেই কেন্দ্রের জবাব তলব। কেন্দ্রকে জবাব দিতে হবে ৪ সপ্তাহের মধ্যে। ৪ সপ্তাহ পর মামলার পরবর্তী শুনানি।

পাশাপাশি অসম সংক্রান্ত মামলাগুলোর প্রেক্ষিতে ২ সপ্তাহের মধ্যে কেন্দ্রের কাছে জবাব তলব করেছে শীর্ষ আদালত।

তবে বিভিন্ন রাজ্যের হাইকোর্টে দায়ের হওয়া আর্জিগুলোর শুনানি চলবে না বলেও এদিন জানিয়ে দিয়েছে প্রধান বিচারপতি বোবদের নেতৃত্বাধীন ৩ বিচারপতি বেঞ্চ।

অন্তর্বতী নির্দেশের জন্য সিএএ মামলার শুনানি চলতে পারে ৫ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চে। তবে এদিন প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ এবিষয়ে কোনও নির্দেশ দেয়নি। আইনজীবীদের একাংশের ধারনা, কেন্দ্র ৪ সপ্তাহে জবাব দেওয়ার পরই মামলাগুলো ৫ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চে স্থানান্তরিত করা হতে পারে।

বুধবার সকালে নয়া নাগরিকত্ব আইনে পক্ষে-বিপক্ষে ১৪৪ টি আর্জি শুনানি শুরু হয় সুপ্রিম কোর্টে। বিভিন্ন হাইকোর্টে দায়ের হওয়া সিএএ সংক্রান্ত মামলা সুপ্রিম কোর্টে সরিয়ে আনার আর্জি জানিয়েছে কেন্দ্র। শুনানিতে শীর্ষ আদালত হাইকোর্টগুলোতে দায়ের হওয়া মামলাগুলোর শুনানি বন্ধ রাখতে নির্দেশ দিয়েছে। যতদিন না সুপ্রিম কোর্ট এবিষয়ে পরবর্তী নির্দেশ দিচ্ছে, হাইকোর্টে দায়ের হওয়া আর্জির শুনানি স্থগিত থাকবে।

Comments
Loading...