নিজের গাড়ি না ওলা-উবর, কীসে বেশি সাশ্রয়? এক নজরে দেখে নিন গাড়ির খরচ

গাড়ি বাজারের সার্বিক মন্দার জন্য অর্থনীতি নয়, ক্রেতাদের মানসিকতার বদলকে অন্যতম কারণ হিসাবে উল্লেখ করেছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। গত মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে অর্থমন্ত্রী বলেন, নতুন প্রজন্ম এখন ওলা, উবারের মতো অ্যাপ ক্যাবে যাতায়াত করা পছন্দ করেন। তাই ইএমআই দিয়ে গাড়ি কেনার ব্যাপারে তাঁরা আর আগ্রহী নন। কিন্তু দেশের গাড়ি বাজারের সাম্প্রতিক মন্দার প্রেক্ষিতে অর্থমন্ত্রীর এই যুক্তি কতটা সত্যি? ওলা, উবারে যাতায়াত করা অধিক সাশ্রয়ী নাকি নিজস্ব গাড়ি কেনাটা বেশি লাভজনক? এই প্রেক্ষিতে সর্বভারতীয় ইংরেজি পোর্টাল, ‘নিউজ ১৮ ডটকম’ এ গত রবিবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, অ্যাপ ক্যাবে নির্ভরতা বেড়েছে, অর্থমন্ত্রীর এই মন্তব্য ঠিক। কিন্তু সেটাই যে গাড়ি বাজারের মন্দার অন্যতম কারণ, নির্মলা সীতারমণের এই দাবি উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে প্রতিবেদনে।
অরিজিৎ গর্গের ”What is cheaper- Travelling in Ola, Uber or Buying a Car- A Comparative Analysis” শীর্ষক প্রতিবেদন অনুযায়ী, অ্যাপ ক্যাবে যাতায়াতের চেয়ে নিজস্ব গাড়ি থাকা অধিক লাভজনক। অরিজিৎ গর্গ তাঁর প্রতিবেদনে ভারতের নিজস্ব অ্যাপ ক্যাব সংস্থা ওলার সঙ্গে প্রাইভেট কারের তুল্যমূল্য বিচার করেছেন। মোটামুটি ৫ বছরের সময়ের মধ্যে মাসিক ২২ দিন যাতায়াতের ক্ষেত্রে অ্যাপ ক্যাব নাকি প্রাইভেট কার কোনটা বেশি লাভজনক তার তুলনা টেনেছেন।
যেহেতু ওলা ক্যাবে মোটামুটি সস্তার গাড়িই ব্যবহৃত হয়, তাই এর সঙ্গে প্রাইভেট কার হিসাবে মারুতি সুজুকি ওয়াগন আরের তুলনা করা হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, অ্যাপ ক্যাবের চেয়ে নিজস্ব গাড়ি থাকাই অধিক লাভজনক।
কোনও অফিসকর্মীর বাড়ি থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে অফিসে যাতায়াতের ক্ষেত্রে ওলা ক্যাবে গড়ে দৈনিক ৫০০ টাকা করে খরচ হয়। মাসে ২২ দিন কারও অফিস থাকলে, ওলায় যাতায়াতে তাঁর খরচ পড়বে ১১ হাজার টাকা। আর ৫ বছরে এই খরচ দাঁড়াচ্ছে ৬ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা।
অন্যদিকে, মারুতি সুজুকি ওয়াগন আরের দাম শুরু হয় ৪ লক্ষ ৩৪ হাজার টাকা থেকে। তবে রাজ্য ভিত্তিক এই দামের সামান্য হেরফের হতে পারে। বর্তমান ব্যাঙ্ক রেট অনুযায়ী, ৫ বছরে ৯ শতাংশ সুদের হারে গাড়ি নিলে সুদের জন্য অতিরিক্ত ৮২ হাজার টাকা যাবে ক্রেতার। আর মেনটেনেন্সের খরচ বাদ দিলে ৫ বছরে একজন মারুতি সুজুকি ওয়াগন আর ক্রেতার খরচ পড়ছে ৫ লক্ষ ৬২ হাজার টাকা। পেট্রলের দাম লিটার প্রতি ৭৫ টাকা ধরলে মাসের ২২ দিন ৩০ কিলোমিটার যাতায়াতের ক্ষেত্রে গাড়ি মালিকের ৫ বছরে জ্বালানি খরচ হচ্ছে প্রায় ১ লক্ষ ৩২ হাজার টাকা। অর্থাৎ, ৫ বছরে গাড়ির দাম ও জ্বালানি খরচ মিলিয়ে গাড়ি মালিকের খরচ হচ্ছে ৫.৬ লক্ষ টাকা + ১.৩২ লক্ষ টাকা। মোট ৭ লক্ষ ২ হাজার টাকা। তাছাড়া নিজস্ব গাড়ি থাকার অন্যতম সদর্থক দিক হচ্ছে, গাড়ি বিক্রির সুবিধা। বিভিন্ন সমীক্ষা থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, অরিজিৎ গর্গ জানিয়েছেন, ৫ বছরের পুরনো ওয়াগন আর মোটামুটি ৩ লক্ষ টাকায় বিক্রি হয়।
৫ বছরে কোনও ওয়াগন আর মালিক গাড়ি কেনা, বিমা খরচ, মেনটেনেন্স খরচের পর গাড়ি বিক্রি করলে তাঁর খরচ হচ্ছে ৫ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা। সুতরাং, অ্যাপ ক্যাবের চেয়ে নিজস্ব গাড়ি থাকলে অন্তত ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা সাশ্রয় হয়।
পাশাপাশি, ব্যস্ত অফিস টাইমে অ্যাপ ক্যাব পাওয়ার অসুবিধা বা কোনও জায়গায় বেড়াতে যাওয়ার ক্ষেত্রে নিজস্ব গাড়ি থাকা অধিক সুবিধাজনক। তাছাড়া অ্যাপ ক্যাব সার্ভিস মেলে মূলত মেট্রো সিটিতে। গাড়ি বিক্রি কমে যাওয়ার মূলে অ্যাপ ক্যাব রয়েছে বলে যে যুক্তি খাড়া করেছেন নির্মলা সীতারমণ তা মোটেই যুক্তিযুক্ত নয় বলে লিখেছেন অরিজিৎ গর্গ।

Comments
Loading...