পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা দিল্লিতে আন্দোলনরত কৃষকদের, টিকায়িতের ট্যুইট

এই অবস্থায় বিপন্ন পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ালেন দিল্লিতে আন্দোলনরত কৃষকরা

খাবার কোথায় পাবে তা নিয়ে ভয় নেই পরিযায়ী শ্রমিক ভাইয়েরা! তোমাদের মুখে খাবার তুলে দেবে দিল্লিতে আন্দোলনরত কৃষক ভাইরা। আর কেউ পাশে থাকুক বা না থাকুক, দেশের কৃষক আছে তোমাদের পাশে।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় ভয়াবহ অবস্থা ভারতের। গত বছরের মতোই আবার আতঙ্কিত পরিযায়ী শ্রমিকরা কাজ ফেলে বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন। এই অবস্থায় বিপন্ন পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ালেন দিল্লিতে আন্দোলনরত কৃষকরা।

কৃষক নেতা রাকেশ টিকায়িত মঙ্গলবার একটি ট্যুইট করেন। রাকেশ টিকায়িত লেখেন, কোনও পরিযায়ী ভাই পেটের খিদের কথা ভেবে ভয়ে দিল্লি ছেড়ে পালিয়ে যাবেন না। দিল্লির বিভিন্ন জায়গায় জমায়েত হওয়া কৃষক ভাইয়েরা মিলে তোমাদের সামান্য খাওয়ার ব্যবস্থা করছি। আরও বলেন, যে পরিযায়ী শ্রমিক ভাইয়েরা ইতিমধ্যেই বাড়ি রওনা হয়ে গিয়েছেন, যাত্রাপথে তাঁদেরও যাতে অভুক্ত না থাকতে হয় সেজন্য খাবার প্যাকেট করা হয়েছে।

করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে নাজেহাল গোটা দেশ। বলগাহীন সংক্রমণ বাড়ছে রাজধানী দিল্লিতে। পরিস্থিতি সামলাতে সোমবার দিল্লিতে লকডাউন ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। ঠিক সেই সময়ই ফিরে এল এক বছর আগের সেই ভয়ঙ্কর ছবি।

এই পরিস্থিতিতে পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়াতে কেন্দ্রকে আর্জি জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। ট্যুইট করে বলেন, পরিযায়ী শ্রমিকরা আবার হাঁটা শুরু করেছেন। এই পরিস্থিতিতে তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা দেওয়া কেন্দ্রীয় সরকারের দায়িত্ব। কিন্তু সরকার করোনার ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য জনগণকে দোষ দিচ্ছে!

এদিকে সোমবার কলকাতায় কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন জানিয়েছেন, পরিযায়ী শ্রমিকরা যাতে বাড়ির আশেপাশেই কাজ পান তার জন্য উদ্যোগ নিচ্ছে কেন্দ্র।

Comments
Loading...