রামায়ণ এক্সপ্রেস শুরু হচ্ছে ৩ রা নভেম্বর, রামের সঙ্গে যুক্ত সব জায়গায় ১৬ দিনে ঘোরার খরচ ১৬ হাজার টাকা থেকে শুরু

রামের সঙ্গে যুক্ত দেশের সব তীর্থস্থানে যাওয়া যাবে একটি মাত্র ট্রেনে। এই লক্ষেই আগামী নভেম্বর মাসে চালু হচ্ছে শ্রী রামায়ণ এক্সপ্রেস। দিল্লি থেকে শুরু হয়ে আরআরসিটিসির দায়িত্বে থাকা শ্রী রামায়ণ এক্সপ্রেস রামের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত সমস্ত তীর্থস্থান ঘুরে দিল্লিতে যাত্রা শেষ করবে। যাত্রী প্রতি ভাড়া পড়বে ১৬ হাজার ৬৫ টাকা।
রেল মন্ত্রক সূত্রে খবর, আগামী ৩ রা নভেম্বর থেকে শুরু হবে শ্রী রামায়ণ এক্সপ্রেসের যাত্রা। রামের সঙ্গে যুক্ত ভারতের তীর্থস্থানগুলি তো আছেই, এই প্যাকেজ ট্যুরের সুবিধায় চাইলে শ্রীলঙ্কাও ঘুরে আসতে পারেন তীর্থযাত্রীরা। সেক্ষেত্রে ৪০ জন যাত্রীকে নিয়ে শ্রীলঙ্কা উড়ে যাবে একটি বিমান। সেখানে আলাদাভাবে যাত্রী প্রতি খরচ পড়বে ৩৬ হাজার ৯৫০ টাকা।
শ্রী রামায়ণ এক্সপ্রেসের যাত্রাপথ শুরু হবে দিল্লি স্টেশন থেকে। প্রথম স্টেশন হবে রামের জন্মভূমি বলে পরিচিত অযোধ্যা। এরপর ট্রেনটি একে একে ছুঁয়ে যাবে রামকোট, কণক ভবন মন্দির। রামায়ণে বর্ণিত বিখ্যাত স্থানগুলি, যেমন নন্দীগ্রাম, সীতামারহি, জানকপূর, বারাণসী, প্রয়াগ, শ্রীঙ্গপুর, নাসিক, হাম্পি ও রামেশ্বরম যাবে শ্রী রামায়ণ এক্সপ্রেস। দিল্লি থেকে শুরু করে তামিলনাড়ুর রামেশ্বরম, এই যাত্রাপথ শেষ হবে ১৬ দিনে। এরপর শ্রী রামায়ণ এক্সপ্রেস ফের ফিরে যাবে দিল্লি। প্যাকেজ ট্যুরে নিরামিষভোজীদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা থেকে শুরু করে ধর্মশালায় রাত্রিবাস, সাইট সিইংয়ের বন্দোবস্ত করবে আইআরসিটিসি। তাছাড়া ট্রাভেল ইনস্যুরেন্সের সুরক্ষাও পাওয়া যাবে।
রেল মন্ত্রক সূত্রে খবর, মোট ৮০০ জন যাত্রী যেতে পারবেন শ্রী রামায়ণ এক্সপ্রেসে। যাত্রী প্রতি ভাড়া পড়বে ১৬ হাজার ৬৫ টাকা। তবে শ্রীলঙ্কা যাত্রার জন্য আলাদা করে ৩৬ হাজার ৯৫০ টাকা ভাড়া দিতে হবে যাত্রীদের। শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য চেন্নাই বিমানবন্দর থেকে কলম্বো যাওয়ার বিমান ধরতে হবে। সেখানে ৫ রাত্রী ও ৬ দিনের ট্যুরে কান্দি, নুওয়ারা এলিয়া, কলম্বো ও নিগোম্বো ঘুরে আসতে পারবেন পুণ্যার্থীরা। ট্যুরে আলাদা করে ৫৫ হাজার টাকা খরচ পড়বে প্রত্যেক পুণ্যার্থীর।

Comments
Loading...