নীরব মোদীর ভাইয়ের বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিস, নেহাল মোদীর বিরুদ্ধে পিএনবি কাণ্ডে দাদাকে সাহায্যের অভিযোগ

পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক ঋণখেলাপি মামলায় প্রধান অভিযুক্ত নীরব মোদীর ভাই নেহালের বিরুদ্ধে এবার রেড কর্নার নোটিস জারি করল ইন্টারপোল। বছর চল্লিশের নেহাল মোদীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, পিএনবি থেকে ১৩,৬০০ কোটি টাকা প্রতারণায় দাদা নীরব মোদীকে বিভিন্নভাবে সাহায্য করেছেন। আদতে বেলজিয়ামের নাগরিক নেহাল মোদী বর্তমানে আমেরিকায় রয়েছেন বলে খবর।
পিএনবি ঋণখেলাপি মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে নেহালের বিরুদ্ধে চলতি বছরের শুরুতে ইন্টারপোলের কাছে রেড কর্নার নোটিস জারির আবেদন করেছিল ইডি। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট অফিসারদের অভিযোগ, জেনে বুঝে ও ইচ্ছাকৃতভাবে নীরব মোদীর বিরুদ্ধে ওঠা ঋণখেলাপি মামলার তথ্য, প্রমাণ নষ্ট করেছেন ভাই নেহাল। ইডির আরও অভিযোগ, ঋণখেলাপি মামলায় নীরব মোদীর নাম জড়ানোর পর দুবাই ও হংকংয়ে বিভিন্ন ভুয়ো ডিরেক্টরদের নামে থাকা মোবাইল ফোন নষ্ট করে দেওয়া হয়। সেই কাজে প্রত্যক্ষভাবে যুক্ত ছিলেন নেহাল। নীরব মোদীদের ভুয়ো বিদেশি সংস্থার মোট ১৭ জন ভুয়ো ডিরেক্টর ও ম্যানেজারকে চিহ্নিত করেছে ইডি। যারা আগে এদেশে নীরব মোদীর সংস্থায় কাজ করতেন, অথবা কর্মরত ছিলেন। ইডি অফিসারদের অভিযোগ, পিএনবি কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে আসার পর এই ভুয়ো ডিরেক্টররা সবাই দেশে ফিরতে চেয়েছিল। কিন্তু তাদের বিদেশে থাকতে বাধ্য করেছিলেন নেহাল মোদী। পিএনবি ব্যাঙ্ক কেলেঙ্কারির প্রমাণ লোপাটের চেষ্টায় ওই ডিরেক্টর ও ম্যানেজারদের সমস্ত ফোন নষ্ট করে দেন নীরব মোদীর ভাই। শুধু তাই নয়, নেহাল মোদীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, দাদা নীরব মোদীর দুবাইয়ের সংস্থা থেকে প্রায় ৫০ কেজি সোনা এবং হংকংয়ের সংস্থা থেকে ১৫০ বাক্স মুক্তো ও প্রচুর নগদ অর্থ পাচার করেছেন তিনি। এছাড়াও, নীরব মোদীর বিভিন্ন ভুয়ো সংস্থা থেকে প্রায় ৩৩৪ কোটি টাকা নিজের সংস্থায় হস্তান্তর করেন নেহাল মোদী।
এই প্রেক্ষিতে নেহাল মোদীর নামে রেড নোটিস কর্নার নোটিস জারি করল ইন্টারপোল। পিএনবি মামলায় এর আগে নীরব মোদীর বোন পূরবী মোদী মেহতার বিরুদ্ধেও রেড কর্নার নোটিস জারি করা হয়েছে।

 

Comments
Loading...