কেন্দ্রের সঙ্গে আলোচনা করেই চলবে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, দায়িত্ব নিয়ে বললেন শক্তিকান্ত দাস

কেন্দ্রের সঙ্গে একাধিক বিষয়ে সংঘাতের কারণে উর্জিত প্যাটেলের পদত্যাগের পর আরবিআই-এর গভর্নর পদে বসে প্রথম সাংবাদিক বৈঠকেই কেন্দ্রের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে চলার কথা ঘোষণা করলেন শক্তিকান্ত দাস। উর্জিত প্যাটেলের পদত্যাগে দেশের বিরোধী দলগুলি মোদী সরকারের দিকেই আঙুল তুলেছে। অভিযোগ করা হয়েছে, দেশের সব প্রতিষ্ঠানের কাজে অযাচিত হস্তক্ষেপ করছে মোদী সরকার। এতে প্রতিষ্ঠানগুলির স্বাধিকারভঙ্গ হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ নোট বাতিলের সময় মোদীর হয়ে সওয়াল করা ইতিহাসে এমএ শক্তিকান্ত দাসকে আরবিআই গভর্নর করল কেন্দ্র


ঠিক এই পরিস্থিতিতে আরবিআই-এর নয়া গভর্নর হিসেবে যোগ দিলেন শক্তিকান্ত দাস। মোদী সরকারের ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত শক্তিকান্ত দাস নোটবন্দির সিদ্ধান্তের সময় ইকোনমিক অ্যাফেয়ার সেক্রেটারি ছিলেন। সেই সময় নোট বাতিলের পক্ষে সওয়াল করে রোজই সাংবাদিক বৈঠক করতেন তিনি। এদিন সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে তিনি বলেন, কেন্দ্র সরকারই দেশের সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ নীতি এবং সিদ্ধান্তের নিয়ে থাকে। তাদের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতেই চলবে আরবিআই। উর্জিত প্যাটেলের পদত্যাগের বিষয়ে সাংবাদিকদের কোনও প্রশ্নের জবাব দেননি তিনি। বর্তমান সরকার ও আরবিআই সংঘাতের ব্যাপারেও তিনি মুখ খোলেননি। তবে যে কোনও সমস্যার সমাধানই আলোচনার মাধ্যমে করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেন তিনি।
তবে শক্তিকান্ত দাসের নিয়োগ নিয়েও মুখ খুলতে শুরু করেছে বিরোধীরা। প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম বলেছেন, নিজের মতো করে রিজার্ভ ব্যাঙ্ককে চালনা করার জন্যই তাঁকে বসানো হয়েছে এই পদে। শক্তিকান্ত দাসকে নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিজেপি নেতা সুব্রমনিয়ান স্বামীও।

Comments
Loading...