অবাধ ও সুষ্ঠু ভোটের স্বার্থে মিলিয়ে দেখা হোক অন্তত ৫০ শতাংশ ভিভিপ্যাট, ২১ রাজনৈতিক দলের আর্জি শুনতে সম্মত সুপ্রিম কোর্ট

সুপ্রিম কোর্টের কাছে নির্বাচনে ৫০ শতাংশ ভিভিপ্যাট স্লিপ পরীক্ষার আবেদন জানিয়েছিল ২১ টি রাজনৈতিক দল। রাজনৈতিক দলগুলির সেই আবেদন মঞ্জুর করল সুপ্রিম কোর্ট। আগামী সপ্তাহে মামলাটি শুনবে শীর্ষ আদালত।

৮ ই এপ্রিল, আদালত নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দেয়, এবারের সাধারণ নির্বাচনে প্রতিটি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে একটির বদলে পাঁচটি বুথের ভিভিপ্যাট স্লিপ ইভিএমের সঙ্গে মিলিয়ে দেখতে হবে। এতদিন পর্যন্ত কেবলমাত্র একটি বুথে ভিভিপ্যাট স্লিপের সঙ্গে ইভিএমের হিসেব মিলিয়ে দেখত কমিশন।

রাজনৈতিক দলগুলি তাদের আবেদনে জানিয়েছে, একটি বুথ থেকে বেড়ে পাঁচটি বুথ হলেও তা সামগ্রিক সংখ্যার নিরিখে যুক্তিসঙ্গত নয়। বুথের সংখ্যার এই সামান্য বৃদ্ধিতে আদালত সন্তোষ প্রকাশ করবে না বলেও আবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। তৃতীয় দফার ভোটের পর করা এই আবেদনে আরও লেখা হয়েছে, বুথের সংখ্যার এই সামান্য বৃদ্ধি অঙ্কের হিসেবে কেবলমাত্র ২ শতাংশ, যা মোটেই যথেষ্ট নয়।

একটি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে থেকে বেছে নেওয়া একটি মাত্র বুথে ভিভিপ্যাটের হিসেব মেলানোর কমিশনের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে আবেদন করেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা। তাদের দাবি, এর ফলে সামগ্রিক ভোটের মাত্র ০.৪৪ শতাংশের হিসেব পাওয়া যাবে। এই হিসেব থেকে কোনও সিদ্ধান্তে আসা যায় না বলেও আবেদনে উল্লেখ করেছেন তাঁরা। এই গাইডলাইনের মাধ্যমে বরং ভিভিপ্যাটের উপযোগিতাকেই খাটো করে দেখানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ তাদের। তাদের প্রশ্ন, ভিভিপ্যাটকে কি তাহলে স্রেফ আলঙ্কারিক ব্যবহারেই সীমাবদ্ধ রাখা হবে? আবেদনে ২০১৩ সালের এই সংক্রান্ত একটি মামলার দৃষ্টান্ত উল্লেখ করেছেন নেতারা। নির্বাচন কমিশন বনাম সুব্রহ্মণ্যম স্বামীর সেই মামলার রায়ে বলা হয়েছিল, সুষ্ঠু ও অবাধ ভোট করতে অপরিহার্য ভিভিপ্যাট। আদালতের এই রায়ের অর্থপূর্ণ প্রভাবের স্বার্থেই অন্তত ৫০ শতাংশ ভিভিপ্যাট পরীক্ষা করা উচিত বলে আবেদনে জানানো হয়েছে। আবেদনকারীদের মধ্যে রয়েছেন, ডেরেক ও ব্রায়েন, অখিলেশ যাদব, অরবিন্দ কেজরিওয়ালব, চন্দ্রবাবু নায়ডু, শরদ পওয়ার, শরদ যাদব, কে সি ভেনুগোপাল, সহ ২১টি রাজনৈতিক দলের নেতৃত্ব। আবেদনের প্রেক্ষিতে আগামী সপ্তাহে মামলার শুনানি হবে বলে জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

Comments
Loading...