বিজেপির সুরে কথা বলছে, আসল উদ্দেশ্য রাজনৈতিক ভাইরাস ছড়ানো, কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দলকে তীব্র কটাক্ষ তৃণমূলের

করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে রাজ্যে আসা কেন্দ্রীয় দলকে সরাসরি আক্রমণ তৃণমূলের। একাধিক নেতা কটাক্ষ ছুঁড়ে দিলেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকদের উদ্দেশে।

প্রশাসনের তরফে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা পাওয়া যাচ্ছে না, এই অভিযোগে রাজ্যকে একাধিক চিঠি দিয়েছেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকরা। তাঁদের দাবি, এখনও পর্যন্ত চারটি চিঠি লিখলেও, রাজ্যের তরফে কোনও জবাব আসেনি।

এই প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় দলের দিকে তোপ দাগলেন তৃণমূল নেতারা। রাজ্যের শাসক দলের  অভিযোগ, করোনা পরিস্থিতি দেখতে নয়, ‘পলিটিক্যাল ভাইরাস’ ছড়ানো হল আইএমসিটি-র আসল উদ্দেশ্য।

তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন ট্যুইট বার্তায় লিখেছেন, কোনও হটস্পটে না গিয়ে উদ্দেশ্যহীনভাবে রাজ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে কেন্দ্রীয় দল। আগে থেকেই রাজ্যে একটি কমিটি রয়েছে। আসলে কেন্দ্রীয় দলের আসল উদ্দেশ্য হল পলিটিক্যাল ভাইরাস ছড়ানো। এখানেই থামেননি ডেরেক। তৃণমূলের রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়েনের কটাক্ষ করেন, আইএমসিটি আসলে ইন্ডিয়াস মোস্ট কেলাস টিম কিংবা আই মাস্ট কজ ট্রাবল ইন বেঙ্গলের সংক্ষিপ্ত রূপ।

কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দলের সদস্যরা বিজেপির সুরে কেন কথা বলছেন, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। একই সুরে কেন্দ্রীয় দলের সদস্যদের দিকে কটাক্ষ ছুঁড়ে দিয়েছেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। তিনি বলছেন, এখানে এসে ঘুরে ঘুরে আমাদের অভিশাপ দিতে গিয়ে মূল্যবান সময় নষ্ট করে ফেলছে কেন্দ্রীয় দল। তাতে সমস্যা বাড়বে রাজ্যেরই। তাই যে রাজ্যে তাঁদের প্রয়োজন, সেখানে গেলেই ভালো হতো।

ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তথা তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেনের অভিযোগ, রাজ্য সরকারকে ছোট করে দেখানোর লক্ষ্যেই কাজ করছে এই কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দল। তাঁর অভিযোগ, যেখানে দু’দিন র‍্যাপিড টেস্ট বন্ধের ফলে করোনা মোকাবিলায় আরও পিছিয়ে পড়ছে রাজ্যগুলি, সেখানে সাম্প্রদায়িকতার তাস খেলা হচ্ছে।

Comments
Loading...