তুষার মেহেতার অপসারণের দাবি পৌঁছল রাষ্ট্রপতির কাছে, SG কে বিজেপির ‘সিক্রেট জেনারেল’ বলে কটাক্ষ অভিষেকের

রাষ্ট্রপতির কাছে দরবার করে সলিসিটর জেনারেলের পদ থেকে তুষার মেহেতার অপসারণ দাবি করল তৃণমূল। সোমবার বেলা সাড়ে ১২ টায় রাষ্ট্রপতি সময় দিয়েছিলেন। সেই মতো রাষ্ট্রপতি ভবনে হাজির হন তৃণমূলের রাজ্যসভার চিফ হুইপ সুখেন্দুশেখর রায় এবং লোকসভার সাংসদ মহুয়া মৈত্র। রাষ্ট্রপতি তাঁদের কথা শুনেছেন এবং বিষয়টি ভেবে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন বলে বেরিয়ে এসে দাবি করেছেন সুখেন্দুশেখর এবং মহুয়া। 

সংবিধানের পবিত্রতা রক্ষায় সলিসিটর জেনারেলের পদ থেকে তুষার মেহেতাকে সরানো হোক। দু’পাতার চিঠিতে বিস্তারিত ভাবে সেই দাবিই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দের কাছে তুলে ধরেছে তৃণমূল। রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে বেরিয়ে মহুয়া মৈত্র জানান, সলিসিটর জেনারেলের বাড়িতে সারদা, নারদায় মুখ্য অভিযুক্ত চলে গেলেন, চা খেলেন কিন্তু যাঁর সঙ্গে দেখা করতে গেলেন, তিনি দেখা করলেন না, এটা মোটেও বিশ্বাসযোগ্য নয়। 

পড়ুন: রাষ্ট্রপতিকে তৃণমূলের চিঠি

সোমবার সকালেই অভিষেক ব্যানার্জি ট্যুইট করেন, ৭২ ঘণ্টা পরেও বাড়ির সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ্যে না আনা কি তুষার মেহেতার নিজের বক্তব্যেরই বিরোধিতা নয়? অভিষেক কটাক্ষ করে লিখেছিলেন, শ্রী মেহেতা এত দুর্বল যুক্তি দিয়ে আপনি হয়ত বিজেপির সিক্রেট জেনারেলের কাজ চালিয়ে যেতে পারবেন কিন্তু ভারতের সলিসিটর জেনারেল হিসেবে নয়। 

সোমবার দুপুরে রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে বেরিয়েও কার্যত একই কথার প্রতিধ্বনি সুখেন্দুশেখর রায়, মহুয়া মৈত্রর গলায়। সুখেন্দুশেখর বলেন, যে মামলায় কৌসুলি হিসেবে সলিসিটর জেনারেল সওয়াল করছেন, সেই মামলায় অভিযুক্ত কী ভাবে তাঁর সঙ্গে বৈঠক করতে পারেন? এতে দেশের সংবিধানের পবিত্রতা প্রশ্নের মুখে পড়ছে বলেও দাবি তাঁর। এর আগে এমন ঘটনার ক্ষেত্রে কী কী হয়েছে তারও তালিকা দেন তৃণমূল সাংসদ। মহুয়া, সুখেন্দুশেখরের দাবি, রাষ্ট্রপতি তাঁদের কথা মন দিয়ে শুনেছেন এবং ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।  

Comments
Loading...