খেলা হবে কোন কৌশলে? তারকাদের নিয়ে ওয়ার্কশপ তৃণমূলের

প্রচার পর্বে কী কী বলতে হবে, তা নিয়েই এদিন রীতিমত খাতা পেন হাতে তৃণমূল ভবনে ক্লাস করতে দেখা গেল রাজ, মানালি, রণিতাদের।

প্রচারে গিয়ে শুধু ভোট চাওয়া, বা দু’একটা মামুলি কথা বলে জনতার মন জয় করলে হবে না, অভিনেতাদের বলতে হবে রাজনৈতিক কথা। এবার সেই উদ্দেশ্যে দলে আসা অভিনেতদের জন্য ওয়ার্কশপ-এর আয়োজন করল তৃণমূল।

অভিনেতাদের রাজনীতিতে আসা নতুন কিছু নয়। তবে বাংলায় একুশের হাইভোল্টেজ নির্বাচনের আগে রাজনীতিতে তারকা আগমন ঘটছে ঘনঘন। এদিন তৃণমূলের পতাকা তুলে নিয়েছেন সায়ন্তিকা ব্যানার্জি।

অভিনেতারা রাজনীতিতে এলেও নেতাদের মত রাজনৈতিক কথা তাঁদের বলতে শোনা যায়না। অন্য জগৎ থেকে আসার জন্য তাঁদের রাজনৈতিক জ্ঞান কিছুটা কম থাকায় হয়তো তাঁরা এড়িয়ে যান রাজনৈতিক প্রসঙ্গ, এমনটাই মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের। অভিনেতাদের রাজনৈতিক শিক্ষা নিয়েও অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন।

ভোটের মুখে ঘাস ফুল শিবিরে নাম লিখিয়েছেন টালিগঞ্জের একঝাঁক তারকা। শুধুমাত্র জনপ্রিয়তার উপর নির্ভর করে ভোট চাওয়া নয়, প্রচার পর্বে কী কী বলতে হবে, তা নিয়েই এদিন রীতিমত খাতা পেন হাতে তৃণমূল ভবনে ক্লাস করতে দেখা গেল রাজ, মানালি, রণিতাদের। আর ক্লাস নিলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন

[আরও পড়ুন- TMC Candidate List: আজই তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা? জল্পনা]

এই ওয়ার্কশপ নিয়ে পরিচালক সুদেষ্ণা রায় জানান, শুধু খেলা হবে বললে হবে না, খেলাটা কীভাবে হবে সেটা মানুষকে বলতে হবে। সিরিয়ালের জনপ্রিয় মুখ রণিতা বলেন, কেন্দ্রের প্রকল্পের সঙ্গে রাজ্য সরকারের প্রকল্পগুলির কী তফাৎ। কন্যাশ্রী সহ একাধিক প্রকল্পে কী কী সুবিধা পেয়েছেন রাজ্যবাসী সেগুলো মানুষকে বলা। পরিচালক রাজ চক্রবর্তী জানালেন, ভালোই ক্লাস হল, শেখার তো কোনও শেষ নেই।

সবমিলিয়ে, ভোট মুখী বাংলায় তৃণমূলের অভিনেতাদের নেতা হওয়ার এই পাঠশালা কতটা সফল তা বঝুতে গেলে অপেক্ষা করতে হবে ২ মে পর্যন্ত।

Comments
Loading...