চাকরিতে আজই আপনাদের শেষদিন, ৩ মিনিটের জুম কলে ৩৭০০ কর্মীকে ছাঁটাই করল উবর, হতবাক বিশ্ব

তিন মিনিটের ফোন কলে কয়েক হাজার কর্মীকে চাকরি থেকে ছেঁটে ফেলল উবর। অস্বাভাবিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মার্কিন মুলুকে। অ্যাপ ক্যাব সংস্থা উবর দীর্ঘদিন ধরেই লোকসানে চলছে। কিন্তু করোনাভাইরাসের থাবায় কার্যত মর মর অবস্থা বিশ্বের সবচেয়ে বড় অ্যাপ ক্যাব সংস্থার। এই পরিস্থিতি স্রেফ একটি তিন মিনিটের ফোন করে ৩৭০০ জনকে ছাঁটাই করল তারা। চাকরি কাড়ার এই পদ্ধতি নিয়ে তোলপাড় বিশ্ব।
জানা গিয়েছে, গত সপ্তাহে সান ফ্রান্সিককো থেকে উবরের কাস্টমার কেয়ার হেড রাফিন শাভেল্যু সংস্থার ৩৭০০ কর্মীকে জুম কলের মাধ্যমে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে ধরেন। সেখানে আর পাঁচটা সাধারণ কথার পর তিনি বলেন, আমরা ফ্রন্টলাইন কাস্টমার সাপোর্টের ৩৫০০ পদ বিলোপ করছি। এতে আপনার আর কাজ থাকছে না। আজই আপনার উবরে শেষ দিন। এর ফলে এক ধাক্কায় উবরের মোট কর্মী সংখ্যার ১৪ শতাংশ ছাঁটাই হয়ে গেলেন।
মাত্র ৩ মিনিটেই শেষ হয়ে যায় বিশ্বের অন্যতম বিতর্কিত এই কনফারেন্স কল। সূত্রের খবর, আচমকা এমন খবর পাওয়ায় বেশিরভাগ কর্মীই বিহ্বল হয়ে পড়েন। কেউ কেউ সরাসরি ক্ষোভ উগরে দেন রাফিনের কাছে। কোনও নোটিস না দিয়ে কেন এভাবে ছাঁটাই করা হচ্ছে? অনেকেই কেঁদে ফেলেন হাউহাউ করে। জানা গিয়েছে গণ ছাঁটাইয়ের ফোন করতে গিয়ে নিজের চোখের জলও সামলাতে পারেননি উবরের কাস্টোমার কেয়ার হেড।
কিন্তু কেন এমন পরিস্থিতি হল? ডেইলি মেল জানাচ্ছে, উবরের অ্যাপ ক্যাব ব্যবসা প্রায় অর্ধেক হয়ে গিয়েছে। তাই তাদের কাস্টমার কেয়ার ডেস্কের কাজও প্রায় নেই বললেই চলে। এই পরিস্থিতিতে খরচ কমানোর লক্ষ্যে এমন নজিরবিহীন পদক্ষেপ উবরের। বছরের প্রথম ত্রৈমাসিকে উবরের লোকসান পৌঁছেছে ২.৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে।

কিন্তু পরিস্থিতি যাই হোক, ফোন করে চাকরি ছাঁটাইয়ের ঘটনা নিয়ে বিতর্কের ঝড় উঠেছে। সবারই কাঠগড়ায় কর্মীদের সঙ্গে উবরের অসংবেদনশীল ব্যবহার।

Comments
Loading...