দলিত-আইনজীবীর পর এবার সাংবাদিক হত্যা যোগী রাজ্যে, আইন শৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ট্যুইট মমতার

পরপর ৩ মহিলা আইনজীবী খুন। শোনভদ্রে গণহত্যা। এবার সাংবাদিকের রহস্যজনক মৃত্যুতে তোলপাড় হল উত্তর প্রদেশ। আরও একবার যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যের প্রশাসনিক ব্যর্থতার দিকে আঙুল তুললেন বিরোধীরা। ট্যুইটারে মৃত সাংবাদিকের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
রবিবার সকালে উত্তর প্রদেশের সাহারানপুরে সাংবাদিক আশিস জানওয়ানি ও তাঁর ভাইকে গুলি করে খুন করে অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীরা। হিন্দি সংবাদপত্র দৈনিক জাগরণের সাংবাদিক ছিলেন বছর তেইশের আশিস জানওয়ানি। কী কারণে আশিস জানওয়ানি ও তাঁর ভাই আশুতোষ জানওয়ানিকে খুন হতে হল জানা না গেলেও, উত্তর প্রদেশ পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, পারিবারিক শত্রুতার কারণে খুন হয়েছেন দুই ভাই।
উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ মৃত সাংবাদিকের পরিবারকে ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন এবং দোষীদের দ্রুত খুঁজে বের করার নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশকে। সোমবার এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে ট্যুইট করেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ট্যুইটারে তিনি লেখেন, সাংবাদিক আশিস জানওয়ানি ও তাঁর ভাইয়ের মৃত্যুতে তিনি শোকস্তব্ধ। মৃতের পরিবার ও দৈনিক জাগরণ টিমকে সমবেদনা জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিকে যোগী রাজ্যে আইনজীবী, সাধারণ মানুষ থেকে সাংবাদিক খুনের ঘটনায় রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছে বলে অভিযোগ করছেন বিরোধীরা। উত্তর প্রদেশ সরকারের প্রবল সমালোচনা করে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বলেন, যাঁদের হাতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার ভার, তাঁরা এখন খুনিদের আড়াল করতে ব্যস্ত।

Comments
Loading...