ইউপিএসসিতে প্রথম হরিয়ানার কৃষকের ছেলে প্রদীপ সিংহ, বলছেন, আমি পারলে সবাই পারবে, দরকার শুধু মনের জোর

আমি অত্যন্ত সাধারণ ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে উঠে এসেছি। আমি যদি ইউপিএসসিতে সফল হতে পারি, যে কেউ পারবে। শুধু দরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞার। এমনই বলছেন ইউপিএসসি পরীক্ষায় প্রথম স্থান দখল করা হরিয়ানার কৃষক পরিবারের সন্তান প্রদীপ সিংহ। জানালেন, বাবার অনুপ্রেরণাই তাঁকে সফল হতে সাহায্য করেছে।

মঙ্গলবার প্রকাশিত হয়েছে UPSC এর ফল। তাতে সফল হয়েছেন মোট ৮২৯ জন। এই তালিকায় শুরুর নামটি হরিয়ানা সোনপতের প্রদীপ সিংহের।

২৯ বছর বয়সি প্রদীপ সিংহ এই নিয়ে চারবার সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা দিলেন। আগেরবারও সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় সফল হয়েছিলেন তিনি। সর্বভারতীয় র‍্যাঙ্ক ছিল ২৬০। বর্তমানে National Academy of Customs, Indirect Taxes and Narcotics বিভাগে প্রবেশনারি পিরিয়ডে রয়েছেন তিনি। প্রদীপের বাবা সুখবীর সিংহ সোনপত অঞ্চলের তেওরি গ্রামের দু’বারের নিযুক্ত সরপ‌ঞ্চ। আট একর জমিতে চাষবাস করা সুখবীর সিংহ জানান ছেলের কঠিন পরিশ্রমই তাঁকে স্বপ্ন পূরণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছে। প্রদীপ অবশ্য তাঁর সাফল্যের কৃতিত্ব দিচ্ছেন বাবা ও পরিবারকে। জানান, আজ তিনি যা কিছু পেরেছেন তা বাবার অনুপ্রেরণাতেই। নিজে কৃষক হলেও ছেলেমেয়েদের পড়াশোনায় কোনও খামতি রাখেননি বাবা সুখবীর সিংহ। প্রদীপের দাদা মেকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করেছেন, বোনের রয়েছে গণিতে এমএসসি ডিগ্রি।

সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় প্রথম হবেন এটা স্বপ্নেও ভাবেননি বলে জানাচ্ছেন প্রদীপ। আর প্রদীপের বাবা বলছেন, প্রথম তিন-চার বছর গ্রামের একটা বেসরকারি স্কুলে ভর্তি করেছিলেন প্রদীপকে। ২০০০ সালে সোনপত শহরের একটি স্কুলে ভর্তি করে দেন প্রদীপকে। তাঁর ইচ্ছে ছিল, ছেলেমেয়েদের পড়াশোনায় যেন কোনও ফাঁক না থাকে।

২০০৮ সালে দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষায় স্কুলে প্রথম হয়েছিলেন প্রদীপ। তারপর বি টেক করে ২০১৩ সালে শুল্ক দফতরে চাকরি পান। চাকরি পেলেও লক্ষ্য থেমে যায়নি। পরপর সিভিল সার্ভিস পরীক্ষা দিয়ে গিয়েছেন প্রদীপ সিংহ। ইউপিএসসি প্রস্তুতির জন্য ওম্যাক্স সিটিতে থাকলেও গ্রামীণ অর্থনীতির সঙ্গে তাঁর নাড়ীর টান। তাই প্রশাসনিক (IAS) বিভাগে যোগ দিয়ে প্রদীপ কাজ করতে চান কৃষির উন্নয়ন নিয়ে।

২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে ইউপিএসসি মেইনস পরীক্ষার ফল ঘোষিত হয়। তার ভিত্তিতে এ বছর ফেব্রুয়ারি থেকে অগাস্ট মাসে ইন্টারভিউতে ডাক পান উত্তীর্ণরা। ইন্টারভিউর ভিত্তিতে মোট ৮২৯ জনকে বেছে নেওয়া হয়েছে। যাঁদের নিয়োগ হবে ভারতীয় প্রশাসনিক বিভাগ (IAS), ভারতীয় পুলিশ বিভাগ (IPS) সহ অন্যান্য বিভাগে।

৮২৯ এর মধ্যে জেনারেল ক্যাটাগরিতে এবার রয়েছেন ৩০৪ জন। ওবিসি ক্যাটাগরিতে ২৫১ জন এবং আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া শ্রেণি থেকে রয়েছেন ৭৮ জন। এছাড়া এসসি ক্যাটাগরিতে রয়েছেন ১২৯ জন এবং এসটি ক্যাটাগরি থেকে রয়েছেন ৬৭ জন।

Comments
Loading...