ঋণখেলাপি অনিল আম্বানীর সংস্থার মুম্বইয়ের সদর দফতর অধিগ্রহণের প্রক্রিয়া শুরু করে দিলো ইয়েস ব্যাংক। সূত্রের খবর, প্রাসাদোপম রিলায়েন্স সেন্টার বিক্রি করে অনাদায়ী ঋণের টাকা তোলার পাশাপাশি সেই বিল্ডিংয়ে ইয়েস ব্যাঙ্কের সদর দফতর সরিয়ে আনা হতে পারে বলেও শোনা যাচ্ছে।

জুলাই মাসে সংবাদপত্রে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে ইয়েস ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ জানায়, ২ হাজার ৮৯২ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে তা ফেরত দেননি অনিল। তাই অনিল আম্বানীর সংস্থার সদর দফতর অধিগ্রহণ করা হচ্ছে।

অনিল আম্বানীর সংস্থা রিলায়্যান্স গ্রুপের সদর দফতর প্রাসাদোপম রিলায়েন্স সেন্টার মুম্বই এয়ারপোর্টের কাছে ওয়েস্টার্ন এক্সপ্রেস হাইওয়ের ধারে অবস্থিত। এই দফতর অধিগ্রহণ নিয়ে ইয়েস ব্যাঙ্কের এমডি তথা সিইও প্রশান্ত কুমার সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, আগেই প্রতীকী অধিগ্রহণ পর্ব শুরু হয়েছিল। এবার তার ফিজিক্যাল পোজেশান নেওয়া হচ্ছে। আমরা এই সম্পত্তি বিক্রি করতে পারি আবার ওখানেই আমাদের অফিস সরিয়ে নিয়ে যেতে পারি। এদিকে রিলায়েন্স ইনফ্রাস্ট্রাকচারের মুখপাত্র বলেন, বিষয়টি এখনও বিচারাধীন। তাই সম্পত্তি রক্ষার বিষয়ে সমস্ত রকম চেষ্টা করা হবে।

চলতি বছরে ইয়েস ব্যাঙ্ক কেলেঙ্কারির মামলায় নাম জড়ায় অনিল আম্বানীর। আর্থিক দুর্নীতির একটি মামলায় রিলায়েন্স গ্রুপের চেয়ারম্যানকে তলব করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। আর্থিক সংকটে পড়া ইয়েস ব্যাঙ্কের কাছ থেকে যে সব বড় কর্পোরেট সংস্থা মোটা অঙ্কের ঋণ নিয়েছে, তাদের মধ্যে অন্যতম অনিল আম্বানীর সংস্থা। ইয়েস ব্যাংকের কাছ থেকে ১২ হাজার ৮০০ কোটি টাকার ঋণ নেয় তাঁর সংস্থা। সেই ঋণ চোকাতে ব্যর্থ হয়েছেন দুনিয়ার ধনীতম ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যতম মুকেশ আম্বানীর ভাই অনিল। এরপরই অনিলের সাম্রাজ্যের সদর দফতর রিলায়েন্স সেন্টার বাজেয়াপ্ত করার প্রক্রিয়া শুরু করে ইয়েস ব্যাঙ্ক। কাগজে কলমে বিল্ডিং ইয়েস ব্যাঙ্কের হাতে আসার পর এবার শারীরিকভাবে প্রাসাদোপম রিলায়েন্স সেন্টারের দখল নিচ্ছে তারা।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

India Coronavirus Condition