২০১৮ সালে দেশে ১০ হাজারের বেশি পড়ুয়ার আত্মহত্যা, বেকারত্ব ও স্কুল-কলেজের পরীক্ষার ফলই অন্যতম কারণ, জানাচ্ছে কেন্দ্রীয় রিপোর্ট

২০১৮ সালে দেশে প্রায় ১০ হাজার পড়ুয়া আত্মহত্যা করেছে। গত ১০ বছরের মধ্যে এটাই পড়ুয়ার আত্মঘাতী হওয়ার সর্বোচ্চ রেকর্ড। দেশে গত বছর কৃষক আত্মহত্যার সংখ্যাও প্রায় একই। ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর (এনসিআরবি) সাম্প্রতিক রিপোর্টে উঠে এল এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য। ২০১৮ সালে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে  প্রতি ২৪ ঘণ্টায় গড়ে ২৮ জন ছাত্রছাত্রী আত্মহত্যা করেছে।
কেন্দ্রীয় রিপোর্ট বলছে, ২০১৮ সালে দেশে মোট আত্মহত্যার সংখ্যা ১ লক্ষ ৩০ হাজার। যার মধ্যে আট শতাংশই পড়ুয়া। এদের মধ্যে আবার ১০ শতাংশই ছিল বেকার। তাছাড়াও এই ১০ হাজার পড়ুয়ার এক তৃতীয়াংশ পরীক্ষায় খারাপ ফল হওয়ার ভয়ে অথবা ফল খারাপের কারণে আত্মহত্যা করেছে।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পড়ুয়াদের আত্মহত্যার পিছনে রয়েছে নানা কারণ। রয়েছে পরীক্ষার ফল খারাপ হওয়ার ভয়, বেকারত্বের যন্ত্রণা, মাদকাসক্তি এবং তা থেকে অবসাদ, পারিবারিক কারণ, ব্যক্তিগত সম্পর্কে বিচ্ছেদ ইত্যাদি। সমাজতাত্ত্বিক ও সমাজকর্মীরা পড়ুয়াদের এই আত্মহনন এবং আত্মহত্যার প্রবণতাকে ভয়ঙ্কর বলে বর্ণনা করছেন। তাঁদের মতে এটি মানসিক ও সামাজিক সমস্যা।

Comments
Loading...