তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হলেন অভিষেক, যুবর দায়িত্বে সায়নী ঘোষ, শ্রমিক সংগঠনের রাজ্য সভাপতি ঋতব্রত

তৃণমূলের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে দায়িত্ব বাড়ল অভিষেক ব্যানার্জির। যুব তৃণমূল সভাপতি থেকে তাঁকে দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। তিনি ছিলেন যুব তৃণমূল সভাপতি। তাঁর জায়গায় যুবর দায়িত্বে এসেছেন সায়নী ঘোষ। 

তৃণমূলের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে আনুষ্ঠানিক ভাবে দায়িত্ব বাড়ল অভিষেক ব্যানার্জির। তাঁকে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। একুশের বিধানসভার প্রচারে মোদী-অমিত শাহের মিলিত নিশানার মুখে পড়েছিলেন অভিষেক ব্যানার্জি। রেকর্ড আসন জিতে জবাব ফিরিয়ে দিয়েছেন যুব তৃণমূলের সভাপতি। লড়াইয়ের পুরস্কার পেলেন অভিষেক। এবার থেকে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদককের পদ সামলাবেন ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ। তাঁর ছেড়ে যাওয়া যুব তৃণমূলে সভানেত্রী হতে চলেছেন সায়নী ঘোষ। ভোটের আগে প্রথম রাজনীতিতে নেমেই আসানসোল দক্ষিণ থেকে সায়নী হেরে গেলেও তাঁর লড়াই ছাপ ফেলেছে। তারই পুরস্কার পেলেন বলে মনে করা হচ্ছে। তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের রাজ্য সভাপতি হয়েছেন ঋতব্রত ব্যানার্জি। বিগত কয়েক বছর তিনি আলিপুরদুয়ারে চা শ্রমিকদের নিয়ে কাজ করছেন।

একুশের ভোটে মমতা ব্যানার্জির পর বিজেপির আক্রমণের লক্ষ্য ছিলেন অভিষেক ব্যানার্জি। প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিয়মিত আক্রমণ শানিয়েছেন অভিষেক ব্যানার্জিকে। সিবিআই পৌঁছে গেছে বাড়িতে। সব চ্যালেঞ্জ সামলে বিজেপির সম্মিলিত শক্তিকে কার্যত উড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূল। নেতৃত্বে মমতার পাশে অভিষেক ব্যানার্জি। এমন বিপুল জয়ের পর অভিষেক ব্যানার্জিকে দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক হিসেবে বেছে নেওয়ায় কোনও ভুল নেই, বলছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একটি অংশ। ২০২৪ কে টার্গেট করে অভিষেক ব্যানার্জি সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে ঝাঁপাবেন। তাঁর ভবিষ্যতের কাজের ক্ষেত্রে সহায়ক হবে পদ, এমনটাই মনে করা হচ্ছে। 

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, প্রশান্ত কিশোর অভিষেকের সঙ্গে কাজ করতে অত্যন্ত স্বচ্ছন্দ। আগামী কঠিন লড়াইয়ে এই জুটি কতটা প্রভাব ফেলতে পারল জানতে তাকাতে হবে আগামীর দিকে। তবে একটা কথা বলাই যায়, অভিষেক ব্যানার্জির জাতীয় স্তরে আত্মপ্রকাশ নিশ্চিত হল।

Comments
Loading...