মহারাষ্ট্র-হরিয়ানার ৯৩ শতাংশ বিধায়কই কোটিপতি, অপরাধে অভিযুক্ত বিধায়কের সংখ্যাও বৃদ্ধি পেয়েছে পাঁচ বছরে

মহারাষ্ট্র এবং হরিয়ানায় নির্বাচিত বিধায়কদের সম্পদ আগের পাঁচ বছরের তুলনায় বহুলাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। পাশাপাশি, নির্বাচিত বিধায়কদের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মামলা থাকার সংখ্যাও বৃদ্ধি পেয়েছে আগের তুলনায়।
গত ২৫ শে অক্টোবর স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন ফর ডেমোক্রেটিক রিফর্মসের (এডিআর) প্রকাশিত রিপোর্ট বলছে, মহারাষ্ট্রের সদ্য নির্বাচিত ২৮৮ বিধায়কের মধ্যে ১৭৬ জনের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মামলা রয়েছে।
এডিআর-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, মহারাষ্ট্রের ৬২ শতাংশ বিধায়কের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মামলা রয়েছে। তুলনায়, ২০১৪ সালে ৫৭ শতাংশ বিধায়কের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মামলা ছিল। এবার জেতা ২৮৫ জন বিধায়কের মধ্যে ১১৫ জনের (৪০ শতাংশ) বিরুদ্ধে রয়েছে খুন,অপহরণের মতো গুরতর অপরাধমূলক মামলা।
অন্যদিকে, হরিয়ানায় ৯০ বিধায়কের মধ্যে ১২ জনের (১৩ শতাংশ) বিরুদ্ধে রয়েছে অপরাধমূলক মামলার অভিযোগ। যার মধ্যে ৭ জনের (৮ শতাংশ) বিরুদ্ধে রয়েছে গুরতর অপরাধের অভিযোগ। ২০১৪ সালে মোট বিধায়কের ৫ জন বা ৬ শতাংশের বিরুদ্ধে গুরতর মামলার অভিযোগ ছিল। রাজনৈতিক দল বিশেষে তুলনা করলে হরিয়ানার কংগ্রেসের ৩১ জন বিধায়কের মধ্যে ৪ জন (১৩ শতাংশ) অপরাধমূলক মামলায় অভিযুক্ত। বিজেপির ৪০ জন বিধায়কের মধ্যে ১ জনের (১০ শতাংশ) বিরুদ্ধে অপরাধমূলক মামলা রয়েছে। জনতা জননায়ক পার্টির (জেজেপি) ১০ বিধায়কের মধ্যে একজন বিধায়কের বিরুদ্ধে রয়েছে অপরাধমূলক মামলার অভিযোগ।
সম্পত্তির বিচারে মহারাষ্ট্রের ৯৩ শতাংশ বিধায়কই কোটিপতি। যা গত বারের তুলনায় ১০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০১৯ সালে মহারাষ্ট্রের বিধায়কদের গড় সম্পত্তির পরিমান ২২ কোটি ৪২ লক্ষ টাকা। মহারাষ্ট্রের বিজেপি বিধায়কদের ৯৫ শতাংশ, শিবসেনার ৯১ শতাংশ, এনসিপি-র ৮৯ শতাংশ ও কংগ্রেসের ৮৬ শতাংশ বিধায়কই কোটিপতি। মহারাষ্ট্রের বিধায়কদের মধ্যে সবচেয়ে বিত্তবান ঘাটকোপার পূর্বের বিজেপি বিধায়ক পরাগ শাহ। তাঁর সম্পত্তির আনুমানিক মূল্য ৫০০ কোটি টাকারও বেশি।
হরিয়ানার ৯০ জন বিধায়কের ৮৪ জনই কোটিপতি। হরিয়ানা বিধায়কদের গড় সম্পত্তি ১৮ কোটি ২৯ লক্ষ টাকা। যা ২০১৪ সালে ছিল ১২ কোটি ৯৭ লক্ষ টাকা। পুনঃনির্বাচিত বিধায়কদের সম্পত্তি গড়ে ৩ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা (২৪ শতাংশ) বেড়েছে। রাজনৈতিক দলের নিরিখে ৯৩ শতাংশ বিজেপির বিধায়কই কোটিপতি। তাদের ৪০ বিধায়কের মধ্যে ৩৭ জনেরই গড় সম্পত্তি ২ কোটি টাকার উপরে। কংগ্রেসের ৩১ জন বিধায়কের মধ্যে ২৯ জন (৯৪ শতাংশ) কোটিপতি। এছাড়া জেজেপি-র ১০ বিধায়কের মধ্যে ১০ জনই কোটিপতি।
হরিয়ানার বিধায়কদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সম্পত্তি রয়েছে মেহেম কেন্দ্রের আইএনডি দলের বিধায়ক বলরাজ কুণ্ডু। তাঁর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ১৪১ কোটি টাকারও বেশি।

Comments
Loading...