কোভিড পরিস্থিতিতে ক্রমেই পিছোচ্ছে এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রির প্রক্রিয়া, আগ্রহপত্র জমার সময়সীমা বেড়ে ৩০ অক্টোবর

এই নিয়ে চতুর্থবার। এয়ার ইন্ডিয়ার ১০০ শতাংশ মালিকানা বিক্রির জন্য আগ্রহপত্র জমা দেওয়ার সময়সীমা আবারও দু’মাস পিছিয়ে দিল কেন্দ্র। রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান সংস্থা কেনার জন্য আগামী ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত আগ্রহপত্র জমা দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি, নিলামে যোগ্য হিসেবে বিবেচিতদের (QIB) বিজ্ঞপ্তি দেওয়ার সময়সীমাও ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে আরও দু’মাস পিছিয়ে ২০ নভেম্বর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

কেন্দ্রের ‘ডিপার্টমেন্ট অফ ইনভেস্টমেন্ট অ্যান্ড পাবলিক অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট’(DIPAM) বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, করোনা পরিস্থিতিতে আগ্রহপত্র জমা দেওয়ার দিনক্ষণ বাড়ানোর আর্জি জানিয়েছিল ইচ্ছুক সংস্থাগুলি। সেই অনুরোধ মেনে সময়সীমা বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

২০২০ সালের মধ্যেই এয়ার ইন্ডিয়ার পুরো মালিকানা বিক্রি করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে মোদী সরকার। জানুয়ারি মাস থেকে আগ্রহপত্র জমা দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। সময়সীমা ধার্য করা হয়েছিল ১৭ মার্চ পর্যন্ত। কিন্তু পরে সেই সময়সীমা বাড়িয়ে ৩০ এপ্রিল করা হয়। তারপর করোনা পরিস্থিতিতে দরপত্র কেনার আগ্রহী সংস্থাদের আবেদনের ভিত্তিতে ফের ৩০ জুন পর্যন্ত পিছিয়ে যায় নিলামের তারিখ। সেটাও পরে বাড়িয়ে ৩১ অগস্ট করেছিল কেন্দ্র।

বছর দুয়েক আগে প্রথম দফায় এয়ার ইন্ডিয়ার ৭৬ শতাংশ মালিকানা বিক্রির চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু ঋণের দায়ে জর্জরিত সংস্থার মালিকানা কেনার জন্য কোনও আগ্রহপত্র জমা পড়েনি। এর কারণ খুঁজতে নিয়োগ করা হয়েছিল উপদেষ্টা সংস্থা। তারা রিপোর্টে জানিয়েছিল, ২৪ শতাংশ অংশীদারি সরকার নিজের হাতে রাখতে চাওয়ায় লগ্নিকারীদের মনে সংশয় দেখা দিচ্ছে। এদিকে ক্ষতির বহর ও ঋণের বোঝা আরও বৃদ্ধি পায়। সবমিলিয়ে রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান সংস্থার ধারের পরিমাণ ৬৯ হাজার কোটি টাকার গণ্ডি ছাড়িয়ে যায়। এই পরিস্থিতিতে এয়ার ইন্ডিয়ার মালিকানা বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। তবে যে সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়া কিনবে, তাদের পুরো ঋণের বোঝা বইতে হবে না বলে শর্ত দিয়ে রেখেছে কেন্দ্র।

Comments
Loading...