উত্তরপ্রদেশের ঘটনাবলি সংবিধানের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ করেছে, যোগী সরকারকে নোটিস এলাহাবাদ হাইকোর্টের

উত্তরপ্রদেশের বর্তমান পরিস্থিতি সংবিধানের মূল মর্যাদাকে ক্ষুণ্ণ করেছে বলে অভিযোগ এনে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু করে যোগী সরকারকে নোটিস পাঠাল এলাহাবাদ হাইকোর্ট।
সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে উত্তরপ্রদেশ জুড়ে তীব্র আন্দোলন, গুলিতে আন্দোলনকারীদের মৃত্যু থেকে পুলিশি আক্রমণের বিরুদ্ধে দেশজুড়ে যোগী সরকারের সমালোচনায় মুখর হয়েছে বিরোধী রাজনৈতিক দল থেকে রাজনৈতিক মহলের বড় অংশ। এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার স্বতঃপ্রণোদিত মামলা করল এলাহাবাদ হাইকোর্ট। প্রধান বিচারপতি গোবিন্দ মাথুর ও বিচারপতি বিবেক ভার্মার ডিভিশন বেঞ্চ একাধিক সংবাদমাধ্যমের রিপোর্টের কথা উল্লেখ করে বলেছে, উত্তরপ্রদেশের পরিস্থিতি সংবিধানের মূলেই কুঠারাঘাত করেছে। বম্বে হাইকোর্টের আইনজীবী অজয় কুমারের পাঠানো একটি ই-মেলকে জনস্বার্থ মামলার মান্যতা দিয়ে উত্তরপ্রদেশ সরকারকে নোটিস দিয়েছে এলাহাবাদ হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।
আইনজীবী অজয় ঠাকুর উত্তরপ্রদেশের পরিস্থিতি নিয়ে নিউ ইয়র্ক টাইমসের ২ জানুয়ারির প্রতিবেদন এবং দ্য টেলিগ্রাফ সংবাদপত্রের ২৯ ডিসেম্বরের প্রতিবেদনের কথা উল্লেখ করেছেন ওই ই-মেলে। এছাড়াও এলাহাবাদ হাইকোর্ট দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের একটি প্রতিবেদনের কথাও উল্লেখ করে। বম্বে হাইকোর্টের ওই আইনজীবীর অভিযোগ, উত্তরপ্রদেশের বর্তমান পরিস্থিতি সংবিধানের মূল ভাবনাকে ক্ষুণ্ণ করছে। তাই ওই রাজ্যের হাইকোর্টের এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা উচিত বলে তিনি মনে করেন।
সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় গত ডিসেম্বর থেকে উত্তরপ্রদেশে তীব্র আন্দোলন, মৃত্যু, জখম নিয়ে প্রচুর প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে। সেখানে উত্তরপ্রদেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও পুলিশের অবৈধ আক্রমণের কথা উল্লেখ হয়েছে। রাজ্যের পরিস্থিতির কথা ভেবে এই মামলা করা হচ্ছে বলে জানায় এলাহাবাদ হাইকোর্ট। আদালতের পক্ষে সিনিয়র আইনজীবী এস এফ এ নকভি ও আইনজীবী রমেশ কুমারকে নিযুক্ত করা হয়েছে এই মামলায়। জনস্বার্থ মামলার শুনানি রয়েছে আগামী ১৬ জানুয়ারি।

Comments
Loading...