১৮ ই অক্টোবরের মধ্যে অযোধ্যা মামলার শুনানি শেষ করতে বলল সুপ্রিম কোর্ট, রায় কি নভেম্বরেই?

১৮ অক্টোবরের মধ্যেই অযোধ্যা মামলার শুনানি শেষ করতে হবে। জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। প্রয়োজনে প্রতিদিন বাড়তি ১ ঘন্টা করে এবং শনিবারও অযোধ্যা মামলার শুনানি চলবে বলে জানিয়েছে শীর্ষ আদালত। শুনানি শেষ হওয়ার পর রায় ঘোষণার জন্য হাতে অন্তত ১ মাস সময় রাখতে চাইছে বেঞ্চ, যাতে সমস্ত পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সময়ের অভাব না হয়। ১৭ ই নভেম্বর অবসর নিচ্ছেন প্রধান বিচারপতি, তাঁর আগেই অযোধ্যা মামলার রায় দিতে চায় সুপ্রিম কোর্ট।
পাশাপাশি, আবেদনকারীরা চাইলে মধ্যস্থতার মাধ্যমে অযোধ্যায় মন্দির-মসজিদ বিরোধ নষ্পত্তি করতে পারে বলেও জানানো হয়। বুধবার অযোধ্যা মামলার শুনানির ২৬ তম দিনে শীর্ষ আদালত জানায়, মামলায় উভয় পক্ষ যদি মধ্যস্থতার মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে চান, তবে তাঁরা তা করতে পারেন। আগামী ১৭ই নভেম্বর প্রধান বিচারপতির পদ থেকে রঞ্জন গগৈ অবসর গ্রহণের আগেই এই রায় প্রদান করা হবে বলে জানা গিয়েছে। এদিন সমস্ত আবেদনকারীকে সওয়াল জবাব শেষ করার জন্য প্রয়োজনীয় সময়সূচি জমা দিতে বলা হয়। সমস্ত রিপোর্ট খতিয়ে দেখে আগামী ১৮ অক্টোবরের মধ্যে অযোধ্যা মামলার শুনানি শেষ করতে হবে বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ।
গত মাসেই শীর্ষ আদালত জানায়, অযোধ্যা মামলায় মধ্যস্থতা প্রক্রিয়া ব্যর্থ হয়েছে এবং ৬ ই অগাস্ট থেকে অযোধ্যা মামলার নিয়মিত শুনানি চলবে।
চলতি বছরের মার্চে অযোধ্যা জমি মামলার মধ্যস্থতার জন্য সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ইব্রাহিম কলিফুল্লার নেতৃত্বে আর্ট অফ লিভিং-খ্যাত শ্রী শ্রী রবিশঙ্কর এবং সিনিয়র আইনজীবী এবং মধ্যস্থতাকারী শ্রীরাম পঞ্চু, এই তিনজনের প্যানেল তৈরি করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু দীর্ঘ মধ্যস্থতা প্রক্রিয়ার পরও মামলাকারীদের ঐক্যমতে আনা যায়নি। এরপরই মামলার দায়িত্ব সুপ্রিম কোর্ট জানায়, নিয়মিত চলবে শুনানি।

শুনানি চলাকালীন সুপ্রিম কোর্ট জানতে চেয়েছিল রামের কোনও বংশধর এখনও কি অযোধ্যায় আছেন? রাজস্থানের এক বিজেপি সাংসদ সেই সময় দাবি করেছিলেন তাঁরা রামের পুত্র কুশের বংশধর

Comments
Loading...