ফের শিরোনামে ভীমা কোরেগাঁও মামলা। কেন্দ্র তদন্তভার এনআইএর উপর ছাড়লেও, মহারাষ্ট্র সরকার তাতে নারাজ। মঙ্গলবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ভীমা কোরেগাঁও মামলার তদন্তভার কেন্দ্রের উপর ছাড়ার কোনও প্রশ্নই নেই। সূত্রের খবর, ভীমা কোরেগাঁও তদন্তের জন্য গঠন করা হচ্ছে স্পেশাল টাস্ক ফোর্স (সিট)।

মঙ্গলবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে জানিয়েছেন, ভীমা কোরেগাঁও মামলা কেন্দ্রের হাতে হস্তান্তর করা হবে না।


২০১৮ সালের পয়লা জানুয়ারি মহারাষ্ট্রের ভীমা কোরেগাঁওয়ে হিংসা ছড়ানো ও মাওবাদী যোগের অভিযোগে ২০ মাস ধরে বন্দি থাকা লেখক ভারভারা রাও, সুধীর ধাওয়ালে, ভার্নন গঞ্জালভেস, রোনা উইলসন, আইনজীবী অরুণ ফেরিরা, সুধা ভরদ্বাজ, সুরেন্দ্র গ্যাডলিং, অধ্যাপক সোমা সেন প্রমুখের বিরুদ্ধে যে মামলা চলছে, তার আলাদা করে তদন্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। তার জন্য রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতর সিনিয়র আইপিএস অফিসারদের নিয়ে একটি সিট গঠন করতে চলেছে।
সূত্রের খবর, মাও যোগে অভিযুক্ত বিশিষ্ট সমাজকর্মী ও আইনজীবীদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট তদন্তের প্রতি বিশেষ নজর দিয়েছে শরদ পাওয়ারের এনসিপি। সংশ্লিষ্ট মামলার তদন্তে পুণে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন পাওয়ার। এই প্রেক্ষিতে সম্প্রতি দক্ষিণ মুম্বইয়ের ওয়াই বি চৌহান সেন্টারে বৈঠক করেন এনসিপি-র শীর্ষ নেতারা। ওয়াই বি চৌহান সেন্টারে বৈঠক শেষে মহারাষ্ট্রের সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী নবাব মালিক জানান, পাওয়ারের নির্দেশ মেনেই টাস্ক ফোর্স গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সিট গঠন নিয়ে এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পাওয়ার মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের সঙ্গে কথা বলেছেন বলে জানান নবাব।
দিন পাঁচেক আগেই পুণের দায়রা আদালত এই মামলার তদন্তভার এনআইএ-র হাতে দেওয়ার নির্দেশ দেয়। সম্প্রতি পুণে দায়রা আদালতে সংশ্লিষ্ট মামলার তদন্ত এনআইএ আদালতে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার আবেদন করেছিল ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি। আদালতে এর বিরোধিতা করে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র দফতর। শেষ পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী এনআইএ-র হাতে এই মামলার তদন্তভার ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলে প্রকাশ্যেই এ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন শরদ পাওয়ার। এরপরই নড়েচড়ে বসে ঠাকরে সরকার। সিট গঠন করে পৃথক তদন্তের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী নিজে জানিয়ে দেন, ভীমা কোরেগাঁও মামলা তদন্তভার কোনওভাবেই কেন্দ্রের হাতে ছাড়া হচ্ছে না। তবে এলগার পরিষদ মামলার তদন্ত এনআইএ করতে পারে, জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী ঠাকরে।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনুমান, মামলার তদন্তভার কেন্দ্রের হাতে দেওয়া নিয়ে নিজের অসন্তোষ ব্যক্ত করেছিলেন শরদ পাওয়ার। তারপর ভীমা কোরেগাঁও মামলা কেন্দ্রের হাতে না ছাড়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে সেই ক্ষতেই প্রলেপ দেওয়ার চেষ্টা করলেন।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

Omar Abdullah Released