রান্নার ব্যবহৃত তেল থেকে তৈরি বায়ো-ডিজেলে চলবে গাড়ি! হোটেল, রেস্তরাঁ থেকে ব্যবহৃত তেল সংগ্রহে নামছে সংস্থাগুলি

জ্বালানি তেলের ওপর নির্ভরতা কমাতে অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করল কেন্দ্র, আগামী দিনে ব্যবহৃত রান্নার তেলে চলবে গাড়ি।
রান্নার পর বাড়তি তেলকে বায়ো-ডিজেলে রূপান্তর করার প্রক্রিয়া শুরু করল ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন, ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন এবং হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন। সংশ্লিষ্ট প্রকল্পের জন্য দেশজুড়ে পুরনো রান্নার তেল সংগ্রহে নামছে ইন্ডিয়ান অয়েল, বিপিএল এবং এইচপিসিএল।
সম্প্রতি কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রক একটি বিবৃতিতে দাবি করেছে, শীঘ্রই ইন্ডিয়ান অয়েল, বিপিএল ও এইচপিসিএলের উদ্যোগে বিভিন্ন শহরে বায়ো-ডিজেলে চলবে গাড়ি। পেট্রোল বা ডিজেলের চেয়ে অনেক কম দাম এই বায়ো তেলে একদিকে যেমন চিরাচরিত জ্বালানি তেলের ওপর নির্ভরতা কমবে, তেমনি বিদেশ থেকে খনিজ তেলের আমদানিতেও রাশ টানতে পারবে কেন্দ্রীয় সরকার।
শোনা যাচ্ছে, ইতিমধ্যেই প্রায় ১০০ টি শহরের হোটেল, ক্যান্টিন থেকে রান্নায় ব্যবহৃত পুরনো তেল লিটার প্রতি ৫১ টাকায় সংগ্রহ করছে ইন্ডিয়ান অয়েল, বিপিএল ও এইচপিসিএল। দ্বিতীয় বছর থেকে লিটার প্রতি ৫২ টাকা ৭০ পয়সা ও তৃতীয় বছরে ৫৪ টাকা ৫০ পয়সা দরে ব্যবহৃত রান্নার তেল সংগ্রহ করা হবে বলে জানাচ্ছে কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রক।
সারা ভারতে প্রায় ২ হাজার ৭০০ কোটি লিটার তেল রান্নায় ব্যবহৃত হয়, আর রান্নার পর প্রায় ১৪০ কোটি লিটার তেল বাড়তি হয়। এই বাড়তি তেলকে হোটেল, রেস্তরাঁ বা ক্যান্টিন থেকে সংগ্রহ করা হবে। এই ১৪০ কোটি লিটার ব্যবহৃত রান্নার তেল থেকে বছরে প্রায় বায়ো-ডিজেল উৎপাদন করা যেতে পারে। তবে হাই-স্পিড ডিজেল (এইচএসডি) তৈরির জন্য বছরে ৫০০ কোটি লিটার বায়ো-ডিজেল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে।
বর্তমানে এ দেশে বায়ো-ডিজেল তৈরির তেমন পরিকাঠামো নেই, ব্যবহৃত রান্নার তেল সংগ্রহ করারও অসুবিধা রয়েছে। তবে ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন, ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন এবং হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের উদ্যোগে আগামী দিনে বায়ো-ডিজেল ব্যবহারের ফলে নতুন দিগন্ত খুলে যাবে বলে কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রকের বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান জানান, আমূল সংস্থা যেমন বিভিন্ন গৃহস্থালি থেকে দুধ সংগ্রহ করে তার প্রক্রিয়াকরণ করে, একইভাবে বাড়ি বাড়ি গিয়ে রান্নায় ব্যবহারের পর বাড়তি তেল সংগ্রহ করার পরিকাঠামো গড়ে তোলা হচ্ছে।

Comments
Loading...