বিজেপি পরিবার ভেঙ্গে দেয়, মোদী সরকার যে কী জব্বর মিথ্যেবাদী বুঝুন, বললেন মমতা

বহিরাগত আক্রমণে বিজেপির মতুয়া রাজনীতিকে মোকাবিলার পথ নিয়েছেন মমতা ব্যানার্জি। আর তা করতে গিয়ে গোপালনগরের সভায় হাতিয়ার করলেন বিজেপির ভেদাভেদের রাজনীতিকে। মঞ্চে হাজির ঠাকুরবাড়ির সদস্য মমতাবালা ঠাকুরকে দেখিয়ে বললেন, দেখুন পরিবার ভেঙ্গে দিয়েছে। সব পরিবার ভেঙ্গে দেবে বিজেপি। এটাই ওদের রাজনীতি।

ভাগাভাগির রাজনীতি করে বাংলা দখল করতে চায় বিজেপি। আপনারা ওই ফাঁদে পা দিলেই দেখবেন সব ভাগাভাগি করে দেবে। মতুয়া মতুয়া ভাগাভাগি করছে দেখুন। এরপরই মঞ্চে বসে থাকা মতুয়া ঠাকুরবাড়ির সদস্য মমতাবালা ঠাকুরকে দেখিয়ে মমতা ব্যানার্জি বলেন, দেখুন পরিবার ভেঙ্গে দিয়েছে। সব পরিবার ভেঙ্গে দেবে বিজেপি। মুখে মিষ্টি মিষ্টি কথা বলে হিন্দু-মুসলিম, কামতাপুরি-রাজবংশি, মানুষে মানুষে ভেদাভেদ করে ঝগড়া লাগিয়ে দেওয়াই ওদের আসল উদ্দেশ্য। 

কৃষি আইন প্রত্যাহার করার দাবি জানিয়ে মমতা বলেন, আমাদের সরকার কৃষকবন্ধু সরকার। আর দিল্লির সরকার সব কেড়ে নিয়ে ভিখারি বানানোর সরকার। তাঁর অভিযোগ শীতকাল কাটলেই আলুর দাম হবে ৫০ টাকা কেজি আর পেঁয়াজের কেজি ঠেকবে ১৮০ টাকায়। তৃণমূল নেত্রীর কথায়, তখন বুঝবেন কী জব্বর মিথ্যেবাদী এই মোদী সরকার! 

পাশাপাশি নিজের প্রশাসক চেহারা সামনে আনেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, যতটা পারি করে দিয়েছি। যেটা দিতে পারিনি তা আমাকে বিক্রি করে দিলেও হবে না। সরকার এভাবে চলে না। মমতা ব্যানার্জি বলেন, আপনাদের বুঝতে হবে আমি যা খুশি করতে পারি না। সরকারের নিয়মের মধ্যে থেকেই আমাকে কাজ করতে হয়। শেষে মমতা ব্যানার্জি বলেন, মানুষের মহাজোট তৈরি করুন। দিল্লির পার্টির কাছে বাংলা মাথানত করবে না।

Comments
Loading...