অবশেষে বিচ্ছেদ ইস্টবেঙ্গল-কোয়েসের, এ মরসুমের শেষেই ভাঙছে সম্পর্ক

ইস্টবেঙ্গল এবং তাদের বিনিয়োগকারী সংস্থা কোয়েসের সম্পর্কে ভাঙন। এই মরসুমের শেষেই হচ্ছে বিচ্ছেদ, তা দিনের আলোর মত পরিষ্কার। আর এই বিষয়ে আলোচনা করতেই শনিবার সল্টলেকের বিনিয়োগকারী সংস্থার অফিসে আলোচনায় বসেছিল দুই পক্ষ। বেঙ্গালুরু থেকে এসেছিলেন বিনিয়োগকারী সংস্থার শীর্ষ কর্তা সুব্রত নাগ। ইস্টবেঙ্গলের পক্ষে ছিলেন শীর্ষ কর্তা দেবব্রত সরকার এবং সৈকত গাঙ্গুলি। বেশ কিছুদিন আগেই বিনিয়োগকারী সংস্থার চেয়ারম্যান অজিত আইজ্যাক জানিয়ে দিয়েছিলেন, এই মরসুমের শেষে তাঁরা আর ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে থাকবেন না। সেই কথাটাই শনিবার আরও একবার স্পষ্ট করে দেন কোয়েস প্রতিনিধি। ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের তিনি জানান, আলোচনা করেই সম্পর্ক ভাঙার প্রক্রিয়াটি কার্যকর করা হবে। বিষয়টি মেনে নিয়েছেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারাও। তাঁরা জানিয়েছেন, এই বিষয়ে তাঁরা বিনিয়োগকারী সংস্থার পাশে থাকবেন।
এই মরসুমের দল গঠন নিয়ে যে তাঁরা একদমই খুশি নন তা এ দিনের বৈঠকে বারবার বলেছেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। দলের ৪ জন বিদেশি পাল্টানোর দাবি করেছেন তাঁরা। সেই সঙ্গে নতুন ভারতীয় ফুটবলার নেওয়ার দাবি করা হয়েছে। বিনিয়োগকারী সংস্থার থেকে ইস্টবেঙ্গল বেশ কিছু অর্থ পায়। সেই অর্থ দ্রুত মিটিয়ে দেওয়ার কথা বলা হয়েছে বৈঠকে। সব মিলিয়ে শনিবার থেকেই বিনিয়োগকারী সংস্থার সঙ্গে ইস্টবেঙ্গলের বিচ্ছেদের প্রক্রিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়ে গেল।

Comments
Loading...