অর্থনীতির বিকাশে ‘গো মন্ত্রিসভা’ গড়ার পথে মধ্য প্রদেশের বিজেপি সরকার

গো রক্ষা এবং গ্রামীণ অর্থনীতির বিকাশে নয়া পদক্ষেপ মধ্য প্রদেশ বিজেপি সরকারের। গোমাতার সুরক্ষার স্বার্থে এবং গো সম্পদকে কেন্দ্র করে অর্থনীতির উন্নয়নে গড়া হচ্ছে ‘গো মন্ত্রিসভা’‌! 

বুধবার মুখ্য মন্ত্রী শিবরাজ সিংহ চৌহান জানান পশুপালন, বন, পঞ্চায়েত, গ্রামোন্নয়ন, স্বরাষ্ট্র এবং কৃষক উন্নয়ন দফতর এই মন্ত্রিসভার ছাতার তলায় নিয়ে আসা হবে। 

রবিবার গোপাষ্টমীর দিন আগর মালওয়ায় গো–অভয়ারণ্যে প্রথম বৈঠক হবে। মধ্য প্রদেশের বিজেপি নেতাদের কথায়, শিল্পোদ্যোগ দিয়ে সবসময় কর্মসংস্থান তৈরি করা যাবে না। গোসম্পদকে কেন্দ্র করে অর্থনীতি আজকের নয়, প্রায় ২০০০ বছর আগে থেকে প্রাচীন ভারতে বিদ্যমান। গ্রামীণ বিকাশে গো-সম্পদ বরাবর বড়ো ভূমিকা নিয়েছে। সরকার গো-অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্য সবরকম সাহায্য করবে। পাশাপাশি এতে গো রক্ষাও হবে। 

বিজেপির গো-রাজনীতিকে ঢাল করেই আগামীতে মধ্য প্রদেশে নিজের পায়ের তলার মাটি শক্ত করতে চাইছেন শিবরাজ সিংহ চৌহান। এমনটাই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। ক’দিন আগেই ‘লাভ–জিহাদ’ রুখতে কড়া আইন প্রণয়নের কথা বলেছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র।

তবে গরু মন্ত্রিসভা গঠনের ভাবনা অবশ্য নতুন নয়। এর আগে ২০১৮ সালে মধ্য প্রদেশের গরু সংরক্ষণ বোর্ডের চেয়ারপার্সন স্বামী অখিলেশ্বরানন্দ প্রথম এই ধরণের মন্ত্রিসভা গঠনের প্রস্তাব দেন। এবার তা কার্যকর করার পথে মধ্য প্রদেশের বিজেপি সরকার।

Comments
Loading...