গোমাংস খাওয়ার জন্য মানুষের মতো বাঘকেও শাস্তি দেওয়া উচিত, গোয়া বিধানসভায় এমনই অভিনব দাবি তুললেন এনসিপি বিধায়ক চার্চিল আলেমায়ো।
বেশ কিছুদিন ধরে বাঘের আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোয়ার মহাদয়ী অভয়ারণ্য এলাকায়। স্থানীয়দের অভিযোগ, তাদের গরুকে বাঘ খেয়ে ফেলছে। গত মাসে এর জেরে এক বাঘিনী ও তিন বাঘ শাবককে পিটিয়ে মেরে ফেলে পাঁচ ব্যক্তি। বুধবার বিষয়টি গোয়া বিধানসভায় তোলেন বিরোধী বিধায়ক দিগম্বর কামাত। এই প্রসঙ্গে শরদ পাওয়ারের দলের বিধায়ক চার্চিল আলেমায়ো বলেন, কোনও মানুষ গোমাংস খেলে যদি তাঁকে শাস্তি পেতে হয়, তা হলে গরু খাওয়ার জন্য বাঘেরও শাস্তি হওয়া উচিত? তিনি বলেন, বণ্যপ্রাণী সংরক্ষণ স্বার্থে বাঘ অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু মানুষের কথা ভাবলে এখন গরু বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এই পুরো ঘটনায় যে মানুষের স্বার্থ জড়িত রয়েছে তা উপেক্ষা করা উচিত নয় বলে মন্তব্য করেন এনসিপি বিধায়ক। চার্চিলের পরামর্শ, যখন গোহত্যার অপরাধে কোনও মানুষকে শাস্তি পেতে হয়, সেই একই শাস্তি বাঘেরও হওয়া উচিত!
এদিকে এই বিষয়ে গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত জানান, বাঘেরা গরু খেয়ে ফেলায় রাগে স্থানীয় মানুষজন বাঘটিকে মেরে ফেলে। তিনি ঘোষণা করেন, তিন থেকে চারদিনের মধ্যে যে গ্রামবাসীদের গরু মারা গিয়েছে, তার ক্ষতিপূরণ দিয়ে দেবে সরকার। যদিও চার্চিলের মন্তব্য ঘিরে হাসির রোল পড়ে গিয়েছে বিভিন্ন মহলে। তবে এনসিপি বিধায়ক তাঁর যুক্তিতে অটল।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

India Coronavirus Death Toll