কল্যাণ: মমতার পরিবারে কেউ CM হতে আগ্রহী নন, বিজেপির পরিবারতন্ত্রের অভিযোগের জবাব তৃণমূলের

মমতা ব্যানার্জির পরিবারে কেউ মুখ্যমন্ত্রী হতে আগ্রহী নন। মমতাকে মুখ্যমন্ত্রী করেছেন বাংলার মানুষ, তাঁর আন্দোলনের জন্য। তৃণমূলে পরিবারতন্ত্র নিয়ে অমিত শাহের অভিযোগের জবাব দিলেন কল্যাণ ব্যানার্জি।

মেদিনীপুরের সভা থেকে অমিত শাহ অভিযোগ করেছিলেন, মমতা ব্যানার্জি ভাইপোকে মুখ্যমন্ত্রী বানাতে চান। তার আগেও একাধিকবার এই ইস্যুতে মমতা ব্যানার্জির দলকে আক্রমণ শানিয়েছে বিজেপি। এবার সরাসরি পরিবারতন্ত্রের অভিযোগ উড়িয়ে কল্যাণ ব্যানার্জি দাবি করলেন, মমতার পরিবারের কেউ মুখ্যমন্ত্রী হতে আগ্রহী নন। পাশাপাশি জানিয়ে দিলেন, পরিবার সূত্রে নয় মমতাকে মুখ্যমন্ত্রী করেছেন বাংলার মানুষ। 

একই ইস্যুতে শুভেন্দু অধিকারীকেও বিঁধেছেন কল্যাণ। শনিবারের সভায় অভিষেক ব্যানার্জিকে নিশানা করে শুভেন্দু বলেছিলেন চোর ভাইপো। শুভেন্দুকে আক্রমণ করে কল্যাণ ব্যানার্জি পাল্টা বললেন, আপনার বুকের পাটা নেই। আপনি কাপুরুষ তাই ভাইপোর নাম মুখে আনার হিম্মত আপনার নেই। 

এদিন শুরু থেকেই অধিকারী পরিবারকে নিশানা করেন কল্যাণ ব্যানার্জি। শুভেন্দুকে বলেন বিশ্বাসঘাতক। অমিত শাহকে কটাক্ষ করে বলেন, মমতা ব্যানার্জির পরিবার নিয়ে আপনার এত মাথাব্যথা কিন্তু অধিকারী তন্ত্র নিয়ে কিছু বললেন না তো!  কল্যাণের কথায়, শুভেন্দু যা করলেন তারপর অধিকারী পরিবারের বিশ্বাসযোগ্যতা তলানিতে ঠেকেছে। অমিত শাহকে শুভেন্দুর প্রণাম করা নিয়েও বিঁধতে ছাড়েননি কল্যাণ। বলেন, আপনি যদি এত বড়ো নেতা হন তাহলে ১৯৯৬, ২০০১, ২০০৪ সালের ভোটে হেরেছিলেন কেন? কল্যাণ ব্যানার্জির দাবি, শুধু মাত্র আপনার দাবি মেটাতে জনগণের কোটি কোটি টাকা খরচ করে নন্দীগ্রামে উপনির্বাচন করতে হয়েছিল, ভুলে গেলেন? 

কল্যাণ ব্যানার্জির অভিযোগ, এককালে যেমন লক্ষ্মণ শেঠের নির্দেশ ছাড়া হলদিয়াতে গাছের পাতা পড়ত না, আজ সেই অবস্থা তৈরি করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। শুভেন্দুকে ঠিকাদারদের রাজার রাজা বলে আক্রমণ করেন। কল্যাণ ব্যানার্জির চ্যালেঞ্জ, আপনি কত বড়ো নেতা প্রমাণ দিন নন্দীগ্রামে ভোটে দাঁড়িয়ে। আমরা বুঝিয়ে দিতে প্রস্তুত, ভোট আমরা কম বুঝি না।

Comments
Loading...