বিজেপির সুবিধা করতেই নোটবন্দি! ভিডিও দেখিয়ে মোদীকে তোপ সিব্বলের

‘কখনও কোনও চৌকিদারকে গরিবের বাড়ি পাহারা দিতে দেখেছেন? দেখবেন না। কিন্তু আম্বানীর বাড়ি যান, দেখবেন লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন চৌকিদারেরা। গরিবের চৌকিদার লাগে না।‘ রাজস্থানের শ্রীগঙ্গানগর এবং বুন্দির নির্বাচনী জনসভা থেকে এভাবেই ফের চৌকিদার নরেন্দ্র মোদীর দিকে কটাক্ষ ছুঁড়ে দিলেন রাহুল গাঁধী। পাশাপাশি প্রায় একই সময়, ৪০০ কিলোমিটার দূরে রাজধানী দিল্লির কনস্টিটিউশন ক্লাবে একটি ভিডিওটেপ দেখিয়ে চৌকিদার নরেন্দ্র মোদীর দিকে আক্রমণ আরও তীব্র করল বিরোধী ব্রিগেড।

মঙ্গলবার নয়া দিল্লির কনস্টিটিউশন ক্লাবে সাংবাদিক বৈঠক করে একটি ভিডিওটেপ দেখান কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল। যে ভিডিওটেপে দেখা যাচ্ছে, নোটবন্দির পর ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে আমেদাবাদের এক বিজেপি কর্মী কমিশনের বিনিময়ে বাতিল নোট বদলে নতুন নোট নিচ্ছেন।

কপিল সিব্বলের অভিযোগ, নোটবন্দি আসলে ভারত সরকার কর্তৃক বিজেপিকে সুবিধা করে দেওয়ার একটি উদ্যোগ। নোটবন্দি করে সাধারণ মানুষের কোমর ভেঙে দিয়েছে মোদী সরকার, বলেন এই বর্ষীয়ান আইনজীবী। দেশের সাধারণ মানুষের টাকা নিয়ে দলীয় তহবিল ভরানোকে সরাসরি দেশদ্রোহীতার সঙ্গে তুলনা করেন সিব্বল।

ভিডিওটেপটি দেখানোর পর কপিল সিব্বল বলেন, দেশের মানুষ এই ভিডিওটেপটি দেখার পর প্রশ্ন করবেন, সদ্য নামের আগে চৌকিদার বসানো নরেন্দ্র মোদী আসলে কোন ভূমিকা পালন করছেন, চোরের না চৌকিদারের! দেশদ্রোহী কে আর দেশপ্রেমী কে, তাও এই ভিডিওটেপ দেখলেই জনতা বুঝতে পারবে বলেও দাবি করেন কপিল। ভিডিওটেপটির সত্যতা যাচাই করেনি thebengalstory.com

সাংবাদিক বৈঠকে কপিল সিব্বল ছাড়াও হাজির ছিলেন মল্লিকার্জুন খাড়গে, আহমেদ প্যাটেল, লোকতান্ত্রিক জনতা দলের শরদ যাদব, ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার হেমন্ত সোরেন, আরজেডির মনোজ ঝা।

Comments
Loading...