ভারতীয় হাই-কমিশনারকে বহিষ্কার পাকিস্তানের, ছিন্ন কূটনৈতিক যোগ, ‘কাশ্মীর অভ্যন্তরীণ বিষয়’, পালটা নয়াদিল্লি

জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বিলোপ এবং রাজ্য ভেঙে দুটি পৃথক কেন্দ্র শাসিত এলাকা তৈরির সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর এবার ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করল পাকিস্তান। এর আগে ভারতের লাদাখ সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ চিন কৈলাস মানস সরোবরে যেতে চাওয়া ভারতীয় তীর্থযাত্রী দলকে ভিসা দিতে অস্বীকার করেছে। এবার পাকিস্তান বহিষ্কার করল ইসলামাবাদে কর্মরত ভারতীয় হাই-কমিশনার অজয় বিসারিয়াকে। যদিও পাকিস্তানের এই সিদ্ধান্তকে খুব একটা আমল দিচ্ছে না ভারত । কাশ্মীর প্রসঙ্গে একেবারেই ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে জানিয়েছে ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক।
ভারতের কাশ্মীর সিদ্ধান্তে শুরুতেই অসন্তোষ প্রকাশ করেছিল ইসলামাবাদ। বুধবার ভারতীয় হাই-কমিশনার অজয় বিসারিয়াকে বহিষ্কার করার কথা ঘোষণা করে ইমরান প্রশাসন। পাশাপাশি, ভারতের সঙ্গে যে গুটিকয়েক বাণিজ্যিক লেনদেন এখনও চলে, তাও স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। ফলে বন্ধ দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যও। এয়ার ইন্ডিয়া সূত্রের খবর, ভারতীয় বিমানের জন্য ফের বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে পাক আকাশসীমা।
বুধবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ডাকে বৈঠকে বসে সে দেশের জাতীয় নিরাপত্তা কমিটি। বৈঠকে ইমরান খানের পাশাপাশি হাজির ছিলেন তিন বাহিনীর প্রধান এবং আইএসআই প্রধান। সেখানেই এই সিদ্ধান্তগুলো নেওয়া হয়।
ভারত অবশ্য পাকিস্তানের পদক্ষেপকে গুরুত্ব দিচ্ছে না। প্রাক্তন বিদেশমন্ত্রী সলমন খুরশিদের দাবি, হাইকমিশনারকে বহিষ্কার করার মধ্যে বিশেষ কোনও তাৎপর্য খুঁজে পাচ্ছেন না তিনি। পাকিস্তানের এই পদক্ষেপকে ‘ছেলে মানুষি’র সঙ্গে তুলনা করছেন তিনি। বিদেশ মন্ত্রকের তরফেও পাকিস্তান নিয়ে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। যদিও রাষ্ট্রসঙ্ঘের আসন্ন সভার আগে পাকিস্তানকে হাতে গরম কাশ্মীর ইস্যু তুলে দেওয়া নিয়ে ভিন্ন মত রয়েছে কূটনীতিকদের মধ্যে। তাঁদের একাংশের মত, এর ফলে আন্তর্জাতিক আসরে চাপে পড়তে পারে ভারত। যদিও একাংশের দাবি, পরিস্থিতি বদলে গিয়েছে। ভারতের একান্ত অভ্যন্তরীণ বিষয় কাশ্মীর ইস্যুতে পাক আপত্তি ধোপে টিকবে না।

Comments
Loading...