গর্ভবতীদের কর্তব্য ও আচরণ নিয়ে ‘গর্ভ সংস্কার’ পাঠ্যক্রম চালু হচ্ছে লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ে

গর্ভাবস্থায় কেমন পোশাক পরবেন মহিলারা, কী খাবেন, কীভাবেই বা নিজেকে ফিট রাখবেন, এসব বিষয় নিয়ে নতুন কোর্স শুরু হচ্ছে লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ে। ভারতে প্রথম বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ‘গর্ভ সংস্কার’ নামে একটি বিষয়ে সার্টিফিকেট ও ডিপ্লোমা কোর্স অন্তর্ভুক্ত করছে তারা।
চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকেই ‘মাতৃত্ব বিষয়ের’ উপর পঠনপাঠন শুরু হবে সেখানে। গর্ভাবস্থায় মহিলারা কী ধরনের পোশাক পরবেন, কী রকম খাবার খাবেন, সেই সময় তাঁদের সঙ্গে কেমন ব্যবহার করতে হবে, তাঁরাই বা অন্যদের সঙ্গে কেমন ব্যবহার করবেন, কীরকম গান-বাজনা শুনবেন, কেমন করে নিজেকে সুস্থ রাখবেন এই সব পাঠ পড়ানো হবে ‘গর্ভ সংস্কার’ কোর্সে। বিশ্ববিদ্যালয় তরফে থেকে বলা হচ্ছে, সার্টিফিকেট ও ডিপ্লোমা কোর্স করলে কর্মসংস্থানও হবে। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পুরুষ, মহিলা উভয়ই ভর্তি হতে পারবেন।
লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখপাত্র দুর্গেশ শ্রীবাস্তবের কথায়, মা হিসেবে পরবর্তীতে মেয়েদের ভূমিকা কী হবে, সে সম্পর্কে যথাযথ প্রশিক্ষণের জন্য উত্তরপ্রদেশ প্রশাসনকে একটি প্রস্তাব দিয়েছিলেন রাজ্যপাল তথা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য আনন্দীবেন প্যাটেল। তাঁর সেই প্রস্তাবের উপর ভিত্তি করেই ‘গর্ভ সংস্কার’ নামে নতুন কোর্স চালু হচ্ছে এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ে।
প্রসঙ্গত, গত বছর এই বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে উত্তরপ্রদেশের রাজ্যপাল আনন্দীবেন প্যাটেল মন্তব্য করেছিলেন, মহাভারতে অভিমন্যু মায়ের গর্ভে থাকার সময়ই অস্ত্রবিদ্যা শিখে ফিলেছিলেন। অর্জুন ও সুভদ্রার পুত্রের উদাহরণ টানার পর রাজ্যপাল জানান, জার্মানিতেও একটি প্রতিষ্ঠান আছে যেখানে গর্ভাবস্থায় কীভাবে থাকা উচিত, তা নিয়ে কোর্স করায়। রাজ্যপালের এই প্রস্তাবের পর লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ও এমন একটি কোর্স চালু করার কথা ভাবে।
সংবাদমাধ্যম এএনআই- কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখপাত্র বলেন, এই কোর্সে পড়ুয়াদের ১৬ টি মূল্যবান বোধ শেখানো হবে। পরিবার পরিকল্পনা, গর্ভবতীদের পুষ্টির দিকে খেয়াল রাখা সহ নানা বিষয়ে পড়ুয়াদের শিক্ষা দেওয়া হয়। কোর্স চলাকালীন বিভিন্ন ওয়ার্কশপেরও আয়োজন করা হবে পড়ুয়াদের জন্য। লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া এবং স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞদের এইসব কর্মসূচিতে অংশ নিতে আহ্বান করা হয়েছে।
এই প্রসঙ্গে যোগী রাজ্যের এক স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ বলেন, জ্ঞাত বা অজ্ঞাতভাবে কোনও মায়ের চিন্তাভাবনা তাঁর শিশুর মধ্যে প্রতিফলিত হয়। তাই গর্ভাবস্থায় মহিলাদের ব্যবহার, তাঁদের সঠিক পথ্য, মানসিক শান্তির বিষয়ে খেয়াল রাখা জরুরি। বিশ্ববিদ্যালয়ের এই উদ্যোগ ইতিবাচক বলে মন্তব্য করেন ওই চিকিৎসক।

 

Comments
Loading...