প্রকৃত ভারতীয়দের যেন এনআরসি তালিকা থেকে বাদ দেওয়া না হয়, অমিত শাহকে বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

অসমের এনআরসি থেকে বাদ যাওয়া ১৯ লক্ষ মানুষের মধ্যে প্রচুর বাংলাভাষী, হিন্দিভাষী ও গোর্খা আছেন। নিজেদের নাগরিকত্ব প্রমাণে তাঁদের যেন সুযোগ দেওয়া হয়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে এমনই আবেদন করলেন রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার নরেন্দ্র মোদীর পর বৃহস্পতিবার দিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
অমিত শাহের সঙ্গে প্রথমবার বৈঠক করে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মমতা বলেন, প্রকৃত ভারতীয়দের নতুন করে পরাধীন হওয়ার দরকার নেই। পাশাপাশি, বাংলায় এনআরসি নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর কোনও আলোচনা হয়নি বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, বাংলায় এনআরসি নিয়ে নিজেদের সিদ্ধান্ত তাঁরা আগেই জানিয়ে দিয়েছেন। এছাড়া, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গের সীমান্তবর্তী এলাকার নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। মমতা জানান, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে একটি চিঠিও দিয়েছেন তিনি। যেখানে অসমের এনআরসি থেকে বাদ যাওয়া মানুষদের নাগরিকত্ব প্রমাণে ফের সুযোগ দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন তিনি।
দ্বিতীয়বার নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর বুধবার প্রথম তাঁর সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন মুখমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গেও প্রথম সাক্ষাৎপর্ব সারলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টা নাগাদ দিল্লির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকও ভালো হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, আশা করা যায় যে সব কথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলেছেন তা নিয়ে ইতিবাচক পদক্ষেপ করবেন তিনি।
বুধবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক শেষ করে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মমতা জানিয়েছিলেন বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সময় দিলে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে চান তিনি। সময় দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। বৃহস্পতিবার দেড়টা নাগাদ নর্থ ব্লকে অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা।
লোকসভা ভোটের আগে উত্তর কলকাতায় অমিত শাহের রোড-শো ঘিরে ধুন্ধুমার পরিস্থিতি, বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার ঘটনায় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতিকে নিশানা করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী। এরপর একাধিকবার বিজেপি সভাপতি ও তৃণমূল নেত্রী একে অপরকে নানা ইস্যুতেই নিশানা করেছেন। লোকসভা ভোট মিটে যাওয়ার কয়েক মাস পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পদে থাকা অমিত শাহের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর এই বৈঠককে তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করেছে রাজনৈতিক মহল।

Comments
Loading...