বনগাঁয় মমতার সভা থেকেই উত্তর ২৪ পরগনায় ঘুরে দাঁড়াতে চায় তৃণমূল, মতুয়াদের নিয়ে কী বার্তা নেত্রীর?

বিধানসভার আসন সংখ্যার নিরিখে রাজ্যের সবচেয়ে বড়ো জেলা উত্তর ২৪ পরগনা। বুধবার এই জেলার বনগাঁ কেন্দ্রে জনসভা করবেন মমতা ব্যানার্জি। তাঁর সভাকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। কী বার্তা দেবেন তৃণমূল নেত্রী?

২০১৯ সালে লোকসভায় উত্তর ২৪ পরগনা তৃণমূলকে হতাশ করেছিল। এমনকী যে বনগাঁয় সভা করবেন মমতা ব্যানার্জি, সেই লোকসভার অন্তর্গত ৫ টি বিধানসভা উত্তর ২৪ পরগনায়। বাকি ২ টি নদিয়ায়। উত্তর ২৪ পরগনার ৫ টি আসনের মধ্যে ৪ টিতেই পিছিয়ে তৃণমূল। এছাড়াও জেলার বেশ কয়েকটি বিধানসভা আসনে বেকায়দায় তৃণমূল। সবমিলিয়ে উত্তর ২৪ পরগনায় খুব একটা স্বস্তিতে নেই রাজ্যের শাসক দল।  

এই লোকসভা কেন্দ্রে মতুয়া ভোট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গত লোকসভা ভোটে যা গেরুয়া বাক্সে ঢুকেছিল। বিধানসভায় কী হবে, এই প্রশ্নেই এখন তোলপাড় রাজ্যের সবচেয়ে বড়ো জেলা। কারণ, নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে মতুয়া ভোট ব্যাঙ্ক জয় করতে সফল হয়েছিল বিজেপি। কিন্তু দীর্ঘদিন হয়ে গেল বিজেপি এখনও প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে পারেনি। যা ক্ষোভের আকারে জমা হয়েছে মতুয়াদের মধ্যে। 

সম্প্রতি বিজেপি নেতৃত্বকে ক্ষোভের কথা জানিয়েছেন বনগাঁর বিজেপি সাংসদ তথা ঠাকুর বাড়ির সদস্য শান্তনু ঠাকুর। তাতেও কাজ না হওয়ায় দলের মিছিল, মিটিং বয়কট করছেন তিনি। গত সপ্তাহে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বনগাঁর সভাতে গরহাজির ছিলেন শান্তনু ঠাকুর। তারপর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সেখাওয়াতের সভাতেও দেখা মেলেনি স্থানীয় সাংসদের। যা চাপে ফেলেছে গেরুয়া শিবিরকে। তারপরই রবিবার রেড রোডের সভা থেকে কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে বলতে শোনা গিয়েছে জানুয়ারির মধ্যেই সিএএ অনুযায়ী মতুয়াদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। কিন্তু তাতে মতুয়া ক্ষোভের আগুনে জল পড়বে কি? 

এই প্রেক্ষাপটে বুধবার বনগাঁয় সভা করবেন মমতা ব্যানার্জি। বিজেপির প্রতি মতুয়াদের মোহভঙ্গের ইস্যুকে কীভাবে কাজে লাগাবেন তৃণমূল নেত্রী, সেটাই এখন বড়ো প্রশ্ন। 

রাজ্য সরকার সূত্রে খবর, মতুয়া উন্নয়ন পর্ষদের ঘোষণা এখন কেবল সময়ের অপেক্ষা। মুখ্যমন্ত্রী বনগাঁর সভা থেকেই তা জানাবেন। পাশাপাশি রাজ্যের দুয়ারে সরকার প্রকল্পের জনপ্রিয়তাও তৃণমূলকে আশা দিচ্ছে। 

গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব থেকে শুরু করে সাম্প্রদায়িক রাজনীতির ফাঁদ। মতুয়া ভোটের পাশাপাশি উত্তর ২৪ পরগনার রাজনীতিতে আলোড়ন ফেলার মতো বিষয় একাধিক। এখন দেখার তৃণমূল নেত্রী কী বলেন।

Comments
Loading...