টাকা দিয়ে তৃণমূলে টিকিট বিক্রি হয় না, প্রার্থী তালিকা কেমন হবে আলিপুরদুয়ার থেকে ইঙ্গিত মমতার

কোন আসনে কে প্রার্থী তার খসড়া তৈরি

লোকসভা ভোটের পর এই প্রথম আলিপুরদুয়ারে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী। প্যারেড গ্রাউন্ড ময়দানে ভিড়ে ঠাঁসা সভায় মমতা ব্যানার্জির ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য, টাকার বিনিময়ে তৃণমূলের টিকিট বিক্রি হয় না। টিকিট পেতে লবি করতে হয় না। যদি সারা বছর মানুষের পাশে থাকেন, পার্টি আপনাকে ঠিক খুঁজে নেবে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, এই কথার মধ্যে দিয়ে তৃণমূল নেত্রী বুঝিয়ে দিলেন, প্রার্থী বাছার ক্ষেত্রে তিনিই শেষ কথা বলবেন। 

আর সপ্তাহখানেকের মধ্যে ভোট ঘোষণা হয়ে যাবে। তার আগে আলিপুরদুয়ারের সভায় দলবদলুদের তীব্র কটাক্ষে বিঁধলেন মমতা ব্যানার্জি। বললেন লোভী, ভোগীরা তাড়ানোর আগে দল ছেড়ে চলে গেছে। আর কেউ যেতে চাইলে রাস্তা খোলা। তৃণমূলে থাকতে হলে শৃঙ্খলাবদ্ধ হয়ে থাকতে হবে। 

কোন আসনে কে প্রার্থী হবেন তার খসড়া তৈরি করে ফেলেছেন দলনেত্রী। সূত্রের খবর, এবার ৪০ জনের বেশি জয়ী বিধায়ককে টিকিট দেবেন না মমতা। তার বদলে স্বচ্ছ ভাবমূর্তি সম্পন্ন লোকজন অগ্রাধিকার পাবেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। পিকের টিম তৃণমূলের সংগঠনের সমান্তরালভাবে সমীক্ষার কাজ করে রিপোর্ট দিচ্ছে মমতা ব্যানার্জির হাতে। মমতা নিজে জেলার নেতৃত্বের সঙ্গে সরাসরি কথা বলছেন। তারপর দুই রিপোর্ট খতিয়ে দেখে সিদ্ধান্ত নেবেন মমতা। 

আলিপুরদুয়ারের সভা থেকে মমতা বলেন, বুথ কর্মীরাই আমার দলের আসল নেতা। তাদের কাঁধে ভর করেই নেতা উঠে আসে। পাশাপাশি টিকিট নিয়ে দলনেত্রীর তাৎপর্যপূর্ণ ইঙ্গিত, টাকা দিয়ে তৃণমূলে টিকিট বিক্রি হয় না। লবি করে টিকিট পাওয়া যায় না। তৃণমূল নেত্রীর কথায়, যারা সারা বছর মানুষের পাশে থাকেন তাদের চিন্তা করার দরকার নেই। দল ঠিক যোগ্য লোককে খুঁজে নেবে। 

লোকসভায় উত্তরবঙ্গে ভরাডুবি হয়েছিল তৃণমূলের। উত্তরবঙ্গ উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চে তাই মমতা ব্যানার্জি বলেছিলেন, লোকসভায় গো হারা হেরেছি। কিন্তু আমি জানি বিধানসভায় আপনারা পুষিয়ে দেবেন। লোকসভার পর থেকে উত্তরে হারানো জমি ফেরাতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছেন দলনেত্রী। এবার ভোট ঘোষণার ঠিক মুখে এসে নেত্রী ইঙ্গিতপূর্ণ ভাবে জানিয়ে দিলেন, টাকা দিয়ে টিকিট বিক্রি হয় না। যারা যোগ্য তারাই টিকিট পাবেন।

Comments
Loading...