বিজেপিকে খুশি করতে পুলিশ কর্তাদের অপসারণ? ক্ষুব্ধ মমতার চিঠি নির্বাচন কমিশনকে

২ সিপি এবং ২ এসপির অপসারণের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার চিঠি লিখলেন নির্বাচন কমিশনকে। চিঠিতে ক্ষুব্ধ মমতা লিখেছেন, কমিশনের সিদ্ধান্ত অগণতান্ত্রিক এবং পক্ষপাতদুষ্ট।

শুক্রবার রাতেই কলকাতা ও বিধাননগরের সিপি এবং ডায়মন্ড হারবার ও বীরভূমের পুলিশ সুপারকে পদ থেকে সরিয়ে দিতে নির্দেশ দেয় নির্বাচন কমিশন। সেসময় তৃণমূল নেত্রী ভোট প্রচারে উত্তরবঙ্গে। সেখান থেকেই কমিশনকে চিঠি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন মুখ্যমন্ত্রী।

চিঠিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, প্রথা মেনে রাজ্য সরকারের কাছে অফিসারদের প্যানেল চাওয়া হয়নি। ২ সিপি এবং ২ এসপির অপসারণের কমিশনের সিদ্ধান্ত ন্যয় বিচারের পরিপন্থী বলেও চিঠিতে উল্লেখ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মমতা লিখেছেন, ঘটনাক্রম দেখে মনে হচ্ছে, যে কেন্দ্রের ক্ষমতাসীন দল অর্থাৎ বিজেপির নির্দেশেই কমিশন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কয়েকদিন ধরেই বিজেপির নেতারা বলছিলেন, রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনের সিনিয়র অফিসারদের সরিয়ে দেবে নির্বাচন কমিশন। পাশাপাশি শুক্রবার একটি টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে নরেন্দ্র মোদী বলেন, বাংলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ, তাই সেখানে ৭ দফায় ভোটের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তার পরেই অফিসারদের অপসারণের কমিশনের সিদ্ধান্ত সন্দেহ আরও দৃঢ় করে। কমিশনকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশ্ন, অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোট নিশ্চিত করাতে কমিশন কি সংবিধান নির্দেশিত পথে চলছে নাকি বিজেপিকে খুশি করতে, তাদের দেখানো পথেই এগোচ্ছে?

চিঠির শেষাংশে মুখ্যমন্ত্রী কমিশনের কাছে আর্জি, তারা যেন সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে। পাশাপাশি কার নির্দেশে পুলিশ আধিকারিকদের সরিয়ে দেওয়া হল, তা যেন তদন্ত করে দেখা হয় বলেও চিঠিতে লিখেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Comments
Loading...