রিকাউন্টিংয়ের নির্দেশ দিলে রিটার্নিং অফিসারের প্রাণ সংশয়! বিস্ফোরক মমতা

ভোটের ফল বেরিয়ে গিয়েছে ঠিকই কিন্তু নন্দীগ্রামের লড়াই শেষ হওয়ার নাম নেই। ফল প্রকাশের পাক্কা ২৪ ঘণ্টা পর মমতার কথা থেকেই তা স্পষ্ট। নন্দীগ্রামে এখনও লড়াই জারি। 

সোমবার কালীঘাটে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মমতা একটি স্ক্রিনশট দেখান। একজন সাংবাদিকে দিয়ে স্ক্রিনশটিতে কী লেখা আছে তা পড়ান মমতা। মমতার দাবি, নন্দীগ্রামের রিটার্নিং অফিসারকে চাপের মুখে কাজ করতে হয়েছে। একজনকে পাঠানো রিটার্নিং অফিসারের চ্যাটের অংশ পড়ে মমতা জানান, সেখানে লেখা আছে, রিকাউন্টিংয়ের নির্দেশ দিলে প্রাণে মেরে ফেলা হতে পারে। গান পয়েন্টে কাজ করতে হচ্ছে। 

কাকে এমন কথা জানালেন নন্দীগ্রামের রিটার্নিং অফিসার? নাম জানাননি মমতা ব্যানার্জি। তবে তিনি এনিয়ে আদালতে যাবেন বলে জানিয়ে ইভিএম, ভিভিপ্যাট আলাদা করে ফরেনসিকের জন্য সরিয়ে রাখার দাবি জানান। ইতিমধ্যেই ট্যাম্পারিং হয়েছে বলেও দাবি বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রীর। মমতার অভিযোগ, দু’জন পক্ষপাতদুষ্ট পর্যবেক্ষক সেখানে ছিলেন। নন্দীগ্রামে কীভাবে ভোট হয়েছে সেটা সবাই দেখেছে। 

তৃণমূল নেত্রীর কথায়, নির্বাচন কমিশন ডিক্লেয়ার করে দিল। রাজ্যপাল ফোন করে শুভেচ্ছা জানালেন। তারপর বলছে না না ভুল হয়েছিল! এরকম কোনওদিন শুনিনি। ৮ হাজার মার্জিন হঠাৎ শূন্য হয়ে গেল! কোর্টে যাবো।  

তৃণমূল নেত্রী জানান, কর্মীরা বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। তাঁর প্রশ্ন, রিকাউন্টিং কেন দেবে না? যতক্ষণ দাবি না মানবে ওরা থাকবে।  

Comments
Loading...