সুষমা স্বরাজকে ট্যুইটারে কুৎসিত আক্রমণ, প্রতিবাদ জানিয়ে বিদেশমন্ত্রীর পাশে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

‘সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ভাষায় বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকে আক্রমণ করা হচ্ছে তার তীব্র নিন্দা করছি। উনি একজন বর্ষীয়ান রাজনীতিক। আমাদের উচিত একে অপরকে সম্মান করা। এই ধরনের ভাষা ব্যবহার থেকে বিরত থাকা’। সোমবার এক ট্যুইট বার্তায় এই কথা জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এক মুসলিম দম্পতিকে দ্রুত পাসপোর্ট পাওয়ার ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন সুষমা স্বরাজ। ওই দম্পতিকে হেনস্থার অভিযোগে বদলি করা হয় লখনউ পাসপোর্ট দফতরের আধিকারিক বিকাশ মিশ্রকে। এই ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশেষ করে বিদেশমন্ত্রীর তীব্র সমালোচনা করে একের পর এক ট্যুইট করা হতে থাকে। যদিও কুরুচিকর মন্তব্যের সামনেও কোনও পাল্টা বিবৃতি দেননি বিদেশমন্ত্রী। ট্যুইটগুলিকে তিনি শুধু লাইক করে একের পর এক রিট্যুইট করেন। এরপর নিজের সমর্থনে ট্যুইটারে ভোটও চান সুষমা। জানতে চান, ওই সংখ্যালঘু দম্পতিকে পাসপোর্ট করে দিয়ে তিনি কোনও অনৈতিক কাজ করেছেন কিনা? ৬০ হাজারের মত ভোট পড়ে। যাতে দেখা যায়, তার মধ্যে বিদেশমন্ত্রীকে সমর্থন জানিয়েছেন প্রায় ৬০ শতাংশ মানুষ। প্রায় ৪০ শতাংশ সমর্থন করছেন কুরুচিকর ট্যুইটকে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে রবিবার পিডিপি নেত্রী মেহেবুবা মুফতি সমর্থন করেছিলেন সুষমা স্বরাজকে। আর এদিন তাঁর পাশে দাঁড়ালেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বা অমিত শাহের মত শীর্ষ বিজেপি নেতৃত্ব এই ইস্যুতে মুখে কুলুপ এঁটেছেন।

Comments
Loading...