তৃণমূলের Mark Yourself Safe from BJP ক্যাম্পেনে বিপুল সাড়া, দলমত নির্বিশেষে মমতার হাত শক্ত করতে এগিয়ে আসছে বাঙালি, দাবি দলের

বিজেপির চোখ ধাঁধানো সাফল্যের অন্যতম কারণ, সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদীর দলের ব্যাপক উপস্থিতি। আজকের জেট যুগে যখন তরুণ সম্প্রদায়ের একটা বড়ো অংশের রাজনৈতিক মতামত সোশ্যাল মিডিয়ার টাইম লাইনের দখলে তখন সেই মাধ্যমে সশব্দ উপস্থিতি স্বভাবতই সমর্থনের পাল্লা ভারি করেছে গেরুয়া বাহিনীর। তবে বাংলায় বিজেপির সেই উইনিং স্ট্র্যাটিজি শক্ত চ্যালেঞ্জের মুখে।

বিজেপি আইটি সেলকে এই প্রথম চ্যালেঞ্জের মুখে দাঁড় করানো তৃণমূল এবার আরও আগ্রাসী মেজাজে। সম্প্রতি তৃণমূলের আইটি সেল লঞ্চ করেছে ‘Mark Yourself Safe from BJP’ ডিজিটাল ক্যাম্পেন। যেখানে ছবি ও গ্রাফিক্সের সাহায্যে একের পর এক তুলে ধরা হচ্ছে দেশের বিভিন্ন জায়গায় গেরুয়া বাহিনীর বিভিন্ন কার্যকলাপ। যা সোশ্যাল মিডিয়ায় অভূতপূর্ব সাড়া পেয়েছে বলে দাবি তৃণমূলের।

ক্যাম্পেনের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট savebengalfrombjp.com এ ইতিমধ্যেই ১ লক্ষ ৩১ হাজারেরও বেশি মানুষ নিজেদের বিজেপির থেকে নিরাপদ বলে চিহ্নিত করেছেন। প্রতি ঘণ্টায় চিহ্নিত হওয়া মানুষের সংখ্যা বাড়ছে পাল্লা দিয়ে। প্রচারের ফেসবুক পেজে এর মধ্যে সদস্য সংখ্যা ৮০ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে।

এর আগে তৃণমূলের ডিজিটাল ক্যাম্পেনে দলীয় সমর্থক ছাড়া বাকিদের এমন স্বতঃস্ফূর্ত অংশ গ্রহণ দেখা যায়নি বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা বলছেন, বিজেপির বিপদ সম্বন্ধে সচেতন মানুষ দল-মত নির্বিশেষে মমতা ব্যানার্জির পাশে দাঁড়াতে চাইছেন, এটাই সোশ্যাল মিডিয়ায় savebengalfrombjp প্রচার কর্মসূচির সূচনায় এমন বিপুল সাড়ার অন্যতম কারণ।

তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপি বিভাজনের রাজনীতি করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চাইছে। সংখ্যালঘু কিংবা মহিলাদের উপর লাগাতার অত্যাচারের ঘটনা তারই জ্বলন্ত প্রমাণ। বাংলার মানুষ বিজেপির এই অভিসন্ধি ধরে ফেলেছেন। আর তাই নাগরিকরা সবাই সমবেত হয়ে নিজেদের বিজেপির থেকে নিরাপদ বলে চিহ্নিত করছেন। বলছেন তৃণমূলের আইটি ম্যানেজারেরা।

Comments
Loading...