বিহারের মতো বাংলাতেও ‘জুমলা’ বিজেপির, সুশীল মোদীর ট্যুইট তুলে ধরে ভেবে ভোট দেওয়ার আবেদন সেলিমের

বিহার ভোটে ১৯ লক্ষ কর্মসংস্থানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বিজেপি। সেই রাজ্যের বিজেপির শীর্ষ নেতা বাংলার ভোটের আগে ট্যুইট করছেন, প্রতিবেশী রাজ্যে সরকারে বদল হলে বিহারের উন্নয়নে মদত হবে এবং বিহারে বসবাসকারী মানুষ সেখানে কাজের নতুন নতুন সুযোগ পাবেন! মোদীর সেই ট্যুইট তুলে ধরে বাংলার মানুষকে ভেবেচিন্তে ভোট দেওয়ার আহবান করলেন সিপিএম নেতা মহম্মদ সেলিম। 

বিহারের শীর্ষ বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদী রবিবার সন্ধেবেলা একটি ট্যুইট করেন। তাতে লেখেন, মোদী-শাহ-নাড্ডার সভায় যা ভিড় দেখছি তাতে বাংলায় বদল এখন স্রেফ সময়ের অপেক্ষা। সেই ট্যুইটের সঙ্গে অপর একটি ট্যুইটে সুশীল মোদী লিখেছেন, প্রতিবেশী রাজ্যে বদল হলে তার সুফল পাবে বিহার এবং লক্ষ লক্ষ বিহারি সেখানে নতুন কাজের সুযোগ পাবেন।

সেই ট্যুইটকে তুলে ধরে সিপিএম পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম লিখেছেন, বিহারিরা স্বাধীনতার আগে থেকেই আমাদের শ্রমশক্তির অভিন্ন অঙ্গ এবং ভবিষ্যতেও থাকবেন। কিন্তু ১৯ লক্ষ চাকরি দেওয়ার জে পি নাড্ডার প্রতিশ্রুতির কি হল? তারপর তথা একুশের ভোটে বামেদের মুখ সেলিম লিখেছেন, বাংলায় বিজেপির কর্মসংস্থানের প্রতিশ্রুতিও তেমনই একটি জুমলা! তাই ভেবেচিন্তে ভোট দিন। 

বিহারের ভোটে চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে তোলপাড় ফেলে দিয়েছিলেন লালু পুত্র তেজস্বী যাদব। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলেন, তেজস্বীকে টেক্কা দিতে ১৯ লক্ষ চাকরির প্রতিশ্রুতি দিতে হয় বিজেপিকে। বাংলায় বিজেপিকে সমর্থন করতে গিয়ে সেই প্রতিশ্রুতি নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েছে বিহারের গেরুয়া শিবির। সেলিমের দাবি, ঠিক যেভাবে বিহারে ভোটে জিততে ১৯ লক্ষের চাকরির জুমলা করা হয়েছিল, সেভাবেই বাংলাতেও করা হচ্ছে।

Comments
Loading...