ডুরান্ড কাপে জয়ের হ্যাটট্রিক মোহনবাগানের, সেমি-ফাইনালে রিয়েল কাশ্মীরের সামনে সবুজ-মেরুন

সেমিফাইনাল নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল আগেই। শনিবার ইন্ডিয়ান নেভির সঙ্গে ম্যাচটি মোহনবাগানের জন্য ছিল শুধুই নিয়মরক্ষার। আর সেই নিয়মরক্ষার ম্যাচে জিতে ডুরান্ড কাপে ম্যাচ জয়ের হ্যাটট্রিক করল মোহনবাগান। ইন্ডিয়ান নেভিকে হারাল ১-০ গোলে। পেনাল্টি থেকে মোহনবাগানের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন ফ্রান গঞ্জালেজ। ২১ শে অগাস্ট ডুরান্ড কাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে রিয়েল কাশ্মীরের মুখোমুখি হবে মোহনবাগান। ম্যাচ শুরু হবে সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায়।
নিয়ম রক্ষার ম্যাচে মোহনবাগানের স্প্যানিশ কোচ কিবু ভিকুনা দলে যে বেশ কিছু পরিবর্তন করবেন, তা জানাই ছিল। হলও তাই। নেভির বিরুদ্ধে প্রথম একাদশে মাত্র একজন বিদেশিকে রেখেছিলেন কিবু। এই মরসুমে প্রথমবারের জন্য মোহনবাগান জার্সিতে মাঠে নামলেন গোলরক্ষক দেবজিৎ মজুমদার। অ্যাকাডেমি থেকে আসা শুভ ঘোষকে এদিন সুযোগ দিয়েছিলেন মোহনবাগান কোচ। অভিষেক ম্যাচেই বেশ নজর কাড়লেন তিনি। বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে গোলের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছিলেন শুভ। প্রথমার্ধের ৩০ মিনিটে তাঁর দুরন্ত শট বাঁচিয়ে দেন নেভি গোলরক্ষক। প্রথমার্ধে সহজ সুযোগ নষ্ট করেন শেখ ফৈয়াজ।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই প্রথম ম্যাচেই নায়ক হওয়ার সহজতম সুযোগ পেয়েছিলেন শুভ। নেভি রক্ষণের ভুলে বল পেয়ে গেছিলেন শুভ। কিন্তু তাঁর সাইড ভলি মারার প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৫ মিনিটে পেনাল্টি পায় মোহনবাগান। বক্সের মধ্যে শেখ ফৈয়াজকে ফাউল করেন প্রাক্তন মোহনবাগানি দলরাজ সিংহ। পেনাল্টি থেকে মোহনবাগানকে এগিয়ে দেন ফ্রান গঞ্জালেজ। গোল পরিশোধের সুযোগ পেয়েছিল নেভিও। বেশ কয়েকবার মোহনবাগান রক্ষণে ফাটল ধরিয়েও গোলরক্ষক দেবজিৎ মজুমদারকে তেমন চাপের মধ্যে ফেলতে পারেনি নৌ সেনার ফুটবলাররা। কলকাতা লিগে এখনও জয়ের মুখ না দেখলেও, ডুরান্ড কাপে জয়ের ধারা অব্যাহত মোহনবাগানের।

Comments
Loading...