বিজেপি নেতা তথা রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্তের ছেলে সৌম্য সৃজন দাশগুপ্তের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ আনলেন তিন মহিলা। অভিযোগকারী এই মহিলা দিল্লির সেন্ট স্টিফেন্স কলেজের প্রাক্তনী। ২০০৯ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত এই কলেজেই ইতিহাসের স্নাতকস্তরে পড়াশোনা করতেন সৌম্য দাশগুপ্ত। বর্তমানে তিনি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী।
ঘটনার সূত্রপাত শনিবার। এদিন এই কলেজে প্রাক্তনীদের দুটি গ্রুপ স্টেফানিয়ানস এবং লাল সিতারাতে একটি পোস্ট করেন এক মহিলা। সেখানে তিনি অভিযোগ করেন, যখন তাঁরা একসঙ্গে কলেজে পড়তেন তখন তাঁর শ্লীলতাহানি করেন সৌম্য। মহিলার আরও দাবি, তাঁর মতই আরও ৫ জন মহিলার সঙ্গে সৌম্য এই একই ব্যবহার করেছেন। কিন্তু কোনও কারণে ভয় পেয়ে ওই মহিলারা গোটা বিষয়টি প্রকাশ্যে আনেননি। পরে যখন তিনি এই বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ করেন তখন তাঁকেও ফেসবুকে ব্লক করে দেন সৌম্য। এই মহিলার আর অভিযোগ, নিজের ক্ষমতা এবং সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হওয়ার প্রভাব খাটিয়ে সৌম্য বিষয়টিকে এতদিন চাপা দিয়ে রেখেছিলেন। লাল সিতারা গ্রুপে এদিন আরও এক মহিলা পোস্ট করে জানান, তিনিও এই রকম ঘটনার সাক্ষী। কলেজে পড়ার সময় তাঁরও শ্লীলতাহানি করেছিলেন সৌম্য। যদিও পরে এই গ্রুপ থেকে পোস্টটি মুছে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।
কিন্তু স্টেফানিয়ানস নামের অন্য একটি গ্রুপে এখনও রয়েছে এই পোস্টটি। সেখানে আবার এক মহিলা অন্য মহিলার বক্তব্যকে সমর্থন করে লিখেছেন, ২০১৭ সালে তিনি যখন লন্ডনে ছিলেন তখন তিনি সোম্য দাশগুপ্তের হাতে যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছিলেন।
যদিও গোটা বিষয়ে স্বপন দাশগুপ্ত অথবা তাঁর ছেলের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

 

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা শুরু করেছি সাবস্ক্রিপশন অফার। নিয়মিত আমাদের সমস্ত খবর এসএমএস এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে পাওয়ার জন্য দয়া করে সাবস্ক্রাইব করুন। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

India Coronavirus Death Toll